• বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:২৭ রাত

নানক: ঘটনা এত বর্বর ও পৈশাচিক তা বুঝতে পারিনি

  • প্রকাশিত ১০:৪৮ রাত ডিসেম্বর ২২, ২০১৯
নুরুল হক নুর
ডাকসু সহ-সভাপতি নুরুল হক নুরের ওপর ২২ ডিসেম্বর হামলার পর তাকে দেখতে ঢামেক হাসপাতালে যান আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক।ফোকাস বাংলা

হাসপাতালে গেলে সেখানে উপস্থিত নুরের সমর্থকরা আওয়ামী লীগ নেতাদের ঢুকতে বাধা দেয়

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কেন্দ্রীয় ছাত্র ইউনিয়নের (ডাকসু) সহ-সভাপতি নুরুল হক নুরের ওপর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ ও মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের হামলার পর তাকে দেখতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে গেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক।

রবিবার (২২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ঢামেকে নানকের সঙ্গে ছিলেন- দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাসিম, ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

হাসপাতালে গেলে সেখানে উপস্থিত নুরের সমর্থকরা আওয়ামী লীগ নেতাদের ঢুকতে বাধা দেয়। পরে নুরের শারীরিক অবস্থার খোঁজ-খবর নেন তারা। শেষে সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন নানক।

নানক বলেন, "শেখ হাসিনার নির্দেশে আমরা এখানে এসেছি। আমরা শুনেছি, তবে ঘটনাটা এতো বর্বর ও পৈশাচিক হয়েছে সেটা আমরা বুঝতে পারিনি। ঘটনাটি যেটাই ঘটেছে শুধু সেটাই নয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোনো ধরনের উচ্ছৃঙ্খলতা, শিক্ষার পরিবেশ বিঘ্নিত করা এই সরকার গ্রহণ করবে না।" 

"এটা রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কোনো ব্যাপার না। দুষ্কৃতকারীরা কোন জায়গার নির্দেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে অশান্ত করার জন্য, শিক্ষার পরিবেশ বিঘ্নিত করার জন্য প্রচেষ্টা চালাচ্ছে সেটা দেখা হবে। আমরা বলতে চাই, যে মঞ্চের নামেই গোলযোগ করা হোক না কেন, কাউকে বর্তমান সরকার রেহাই দিবে না। শিক্ষার পরিবেশ রক্ষার প্রয়োজনে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। সবাইকে আইনের আওতায় আনতে হবে।" 

আওয়ামী লীগের এই নেতা আরও বলেন, "এটা হাসপাতাল। এখানে অনেক জরুরি রোগী রয়েছে। এখানে যারা স্লোগান দিচ্ছেন তাদেরকে তাদেরও কুমতলব রয়েছে। তাদের কুমতলব সম্পর্কে সজাগ থাকতে হবে। যারা এখানে আমাদেরকে 'ভারতের দালাল' বলে স্লোগান দিচ্ছেন, এরা কী চায়, এদের উদ্দেশ্য কি এগুলো আমরা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছি। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে, যাতে গোলযোগ সৃষ্টি করে পবিত্র শিক্ষাঙ্গন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে কেউ অশান্ত করতে না পারে।" 

এর আগে দুপুরে ডাকসু ভবনের নিজ কার্যালয়ে হামলার শিকার হন ভিপি নুর ও তার সহকর্মীরা।


আরও পড়ুন - ভিপি নুরের ওপর আবারও হামলা