• রবিবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪২ রাত

আগুন পোহাতে গিয়ে শিশুসহ দুই জনের মৃত্যু

  • প্রকাশিত ০৬:৩৮ সন্ধ্যা ডিসেম্বর ২৬, ২০১৯
রংপুর
রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিট। ঢাকা ট্রিবিউন

আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে আরও ২৬ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন

প্রচণ্ড শৈত্যপ্রবাহে শীতের কবল থেকে রক্ষা পেতে আগুন পোহাতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়ে এক শিশুসহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার (২৫ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত দেড়টায় এবং বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) ভোর রাতে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে তাদের মৃত্যু হয়। 

মৃতরা হলেন- গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বাবর আলীর সাড়ে তিন বছরের কন্যা সাবিহা এবং একই জেলার সাদুল্লাপুর উপজেলার ইলছপুর গ্রামের ছিদ্দিকুল ইসলামের ছেলে আলম (৩৫)।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের বিভাগীয় প্রধান ডা. এম এ হামিদ পলাশ জানান, আগুন পোহানোর সময় ওদের দু’জনের শরীরের ৬০ থেকে ৬৫ ভাগ পুড়ে গিয়েছিলো। 

তিনি জানান, আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে আরও ২৬ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন। এছাড়া তিনজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং আরও তিনজনের অবস্থা বেশি খারাপ হওয়ায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। অগ্নিদগ্ধদের বেশিরভাই নারী ও শিশু। 

ডা. পলাশ বলেন, “শীতের কারণে আগুন পোহালে তেমন কোনো লাভ হয় না বরং অসাবধানতায় কাপড়ে আগুন লেগে যায়।” তাই আগুন পোহানো পরিহার করে শিশু এবং বয়স্কদের গরম কাপড় পরিয়ে রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমাতে যেতে হবে এবং দেরিতে ঘুম থেকে ওঠার পরামর্শ দেন তিনি।