• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:২৫ দুপুর

বুড়িগঙ্গায় বালুবাহী জাহাজডুবি: ৪ শ্রমিকের মৃত্যু

  • প্রকাশিত ১১:১৮ সকাল জানুয়ারী ৩, ২০২০
বুড়িগঙ্গা জাহাজডুবি
বুড়িগঙ্গায় জাহাজডুবিতে মারা গেছেন চার শ্রমিক ঢাকা ট্রিবিউন

রাতের কোনো একসময় তলা ছিদ্র হয়ে ভেতরে পানি ঢুকে জাহাজটি ডুবে যায়

বুড়িগঙ্গা নদীতে “তাহমিনা এক্সপ্রেস” নামে একটি বালুবাহী বাল্কহেড জাহাজ ডুবিতে ৪ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস সদস্য ও ডুবুরিরা জাহাজের ইঞ্জিনরুম থেকে আটকে পড়া অবস্থায় তাদের মরদেহ উদ্ধার করেন। তবে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে মাস্টারসহ দু'জনকে।

শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) ভোররাতে ঢাকার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ এলাকায় নদীর পশ্চিমতীরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- পিরোজপুর জেলার কাউখালী উপজেলার মোস্তফা তালুকদার (৫৫), একই জেলার বটবাড়ির বাবু (১৮), ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার লুৎফর রহমান (৩৯) ও বরিশালের বানারিপাড়া উপজেলার মহিবুল্লাহ (৬০)। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে কেরাণীগঞ্জ থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) কামরুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বাল্কহেড জাহাজটিকে পরিষ্কার করার জন্য দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জের খেয়াঘাট এলাকার বুড়িগঙ্গা নদীতে নোঙর করেন শ্রমিকরা। কাজ সেরে তারা ইঞ্জিনরুমে ঘুমিয়ে যান। রাতের কোনো একসময় তলা ছিদ্র হয়ে ভেতরে পানি ঢুকে জাহাজটি ডুবে যায়। এই দুর্ঘটনায় ভেতরে আটকে পড়া ছয় শ্রমিকের চারজনই মারা যান। 

পরে নৌ-পুলিশ তাদের মরদেহ উদ্ধার করে কেরাণীগঞ্জ থানায় নিয়ে যায়। মরদেহগুলো ইতোমধ্যে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ডুবে যাওয়া বাল্কহেড থেকে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করা মাস্টার আমির হোসেন (৫৫) ও শ্রমিক কুতুবউদ্দিন (২৯)-কে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। 

এসআই কামরুল আরও বলেন, এই দুর্ঘটনায় কোনো মামলা করবেন না বলে জানিয়েছেন নিহতদের স্বজনরা।