• বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:০৮ সকাল

অধ্যক্ষ নেই বৃহত্তর কুমিল্লার ৮ কলেজে

  • প্রকাশিত ০৮:৫৬ রাত জানুয়ারী ৬, ২০২০
কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড
কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড। সংগৃহীত

ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ চলতি দায়িত্ব পালন ছাড়া কোনো নীতি নির্ধারণী বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে না পারায় নানা সংকট চলছে এই কলেজগুলোতে

বৃহত্তর কুমিল্লার তিন জেলা কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও চাঁদপুরের আটটি কলেজে কোনো অধ্যক্ষ না থাকায় দীর্ঘদিন ধরে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ দিয়েই চলছে এসব কলেজ।

ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ চলতি দায়িত্ব পালন ছাড়া কোনো নীতি নির্ধারণী বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে না পারায় নানা সংকট চলছে এই কলেজগুলোতে। যার কারণে সামগ্রিকভাবে শিক্ষার কার্যক্রমের পাশাপাশি ব্যাহত হচ্ছে প্রশাসনিক কাজও। এর মধ্যে কোনো কোনো কলেজে আবার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়ে রয়েছে গ্রুপিং ও লবিং।

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক দপ্তর কুমিল্লা অঞ্চল সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লা জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার লালমাই সরকারি কলেজ, নাঙ্গলকোট উপজেলার নাঙ্গলকোট হাসান মেমোরিয়াল সরকারি কলেজ, চান্দিনা উপজেলার দোল্লাই নোয়াবপুর সরকারি কলেজ, মুরাদনগর উপজেলার শ্রীকাইল সরকারি কলেজ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জ উপজেলার ফিরোজ মিয়া সরকারি কলেজ, আখাউড়া উপজেলার আখাউড়া শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ, কসবা আদর্শ সরকারি কলেজ এবং চাঁদপুর জেলার মতলব সরকারি কলেজ চলছে অধ্যক্ষ ছাড়াই।

অন্যদিকে, লালমাই সরকারি কলেজ, আখাউড়া শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ, মতলব সরকারি কলেজ ও কচুয়া বঙ্গবন্ধু কলেজের উপাধ্যক্ষ নেই।

এ বিষয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক দপ্তরের কুমিল্লা অঞ্চলের পরিচালক সোমেশ কর চৌধুরী বলেন, “অধ্যক্ষের শূন্য পদগুলো পূরণের কাজ চলছে।”

সোমেশ কর চৌধুরী বলেন, “জাতীয়করণ হওয়া কলেজগুলোতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় পর্যায়ক্রমে অধ্যক্ষ নিয়োগ দিচ্ছে। ইতোমধ্যে কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার মানিকারচর বঙ্গবন্ধু সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ পদে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের একজন অধ্যাপককে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। অন্য যেসব কলেজে অধ্যক্ষের পদ শূন্য রয়েছে তার তালিকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের প্রধান কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। আশা করি শিগগিরই অধ্যক্ষ নিয়োগ দেওয়া হবে।”