• বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৯ রাত

ছেলের লাঠির আঘাতে মায়ের মৃত্যু

  • প্রকাশিত ১০:০১ সকাল জানুয়ারী ৭, ২০২০
লাশ
প্রতীকী ছবি

সোমবার (৬ জানুয়ারি) রাত পৌনে ৯ টার দিকে রামেক হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি 

রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌর এলাকার শ্রীমন্তপুর গ্রামে মাদকাসক্ত ছেলে সুমনের লাঠির আঘাতে চিকিৎসারত অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে মারা গেছেন শঙ্করী রানী (৬০)  নামে এক নারী।

সোমবার (৬ জানুয়ারি) রাত পৌনে ৯ টার দিকে রামেকের আইসিইউতে মারা যান তিনি। তিনি ওই গ্রামের আশা ঘোষের স্ত্রী। তার মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রামেক হাসপাতালের পুলিশ বক্সের দায়িত্বরত কনস্টেবল জুয়েল রানা। 

সুমনের চাচাতো ভাই রতন জানান, সুমন দীর্ঘদিন থেকে মাদকাসক্ত। সোমবার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে মায়ের কাছে টাকা চায়। মা তা দিতে রাজি না হলে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এতে সেখানেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন তিনি। পরে তারা সুমনের মাকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালে তার অবস্থার অবনতি হলে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়। রাত পৌনে ৯ টার দিকে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ প্রসঙ্গে গোদাগাড়ী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল ইসলাম বলেন, “মাদকাসক্ত ছেলে তার মাকে মেরেছে বলে শুনেছি।” এ বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে বলেও তিনি জানান।