• বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩০ সকাল

বরগুনা সরকারি কলেজের ছাত্রীকে কুপিয়ে হত্যা

  • প্রকাশিত ০৯:১৪ রাত জানুয়ারী ৮, ২০২০
স্ত্রীকে হত্যা
প্রতীকী ছবি।

একপর্যায়ে আবু সালেহ হাতের কাছে থাকা ধারালো চাপাতি দিয়ে জাকিয়াকে এলোপাথারি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই জাকিয়ার মৃত্যু হয়

বরগুনার বামনা উপজেলায় পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রী জাকিয়া আক্তার (২২) নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা করেছে স্বামী মো. আবু সালেহ (৪০)। এ ঘটনায় আবু সালেহকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

বুধবার (৮ জানুয়ারি) বিকাল চারটার দিকে বামনা উপজেলার ডৌয়াতলা ইউনিয়নের দক্ষিণ কাকচিড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ওই স্ত্রী মোসা. জাকিয়া আক্তার (২২) দক্ষিণ কাকচিড়া গ্রামের হারুন জমাদ্দারের মেয়ে। সে বরগুনা সরকারি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিল। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দুই বছর পূর্বে পার্শ্ববর্তী উত্তর গুদিঘাটা গ্রামের মো. রতন হাওলাদারের ছেলে আবু সালেহ সাথে নিহত জাকিয়া আক্তারের পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। লেখাপড়ার কারণে স্ত্রী জাকিয়া বাবার বাড়িতে থাকতো। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই কলহ দেখা দিতো। ঘটনার দিন স্বামী আবু সালেহ শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে গেলে স্ত্রী জাকিয়ার সাথে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আবু সালেহ হাতের কাছে থাকা ধারালো চাপাতি দিয়ে জাকিয়াকে এলোপাথারি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই জাকিয়ার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে বামনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মাসুদুজ্জামান বলেন, “আমি হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে চলে আসি। ঘাতক স্বামীকে সন্ধ্যার দিকে উত্তরকাকচিড়া গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।”