• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪০ রাত

বাংলাদেশিকে হত্যা করে লাশ নিয়ে গেল বিএসএফ

  • প্রকাশিত ০৬:৫৫ সন্ধ্যা জানুয়ারী ১১, ২০২০
সীমান্ত
বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত । ঢাকা ট্রিবিউন

গুলি লেগে সাবুল ইসলাম ঘটনাস্থলেই নিহত হন

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে এক বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করে লাশ নিয়ে গেছে ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএসএফ। শনিবার (১১ জানুয়ারি) ভোরে উপজেলার পাড়িয়া সীমান্তে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত ব্যক্তির নাম সাবুল ইসলাম (৪৬)। তিনি উপজেলার আমজানখোর ইউনিয়নের তারাঞ্জুবাড়ী গ্রামের তমিজ উদ্দীনের ছেলে।

বিকেলে ১৭১ বিএসএফ-এর বারোঘরিয়া ক্যাম্প কমান্ডারের টেলিফোনের বরাত দিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ৫০ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর হুমায়ুন কবির।

বিজিবি জানায়, শনিবার ভোর রাতে সাবুল ইসলামসহ কয়েকজন পাড়িয়া সীমান্তের ৩৮৭ নম্বর পিলার সংলগ্ন এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করেন। এসময় ভারতের বারোঘরিয়া ক্যাম্পের বিএসএফ’র সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে সবাই পালিয়ে যায়। কিন্তু গুলি লেগে সাবুল ইসলাম ঘটনাস্থলেই নিহত হন। 

গুলি চালিয়ে বাংলাদেশি হত্যার প্রতিবাদ জানিয়ে শনিবার দুপুরে বিএসএফ’কে চিঠি দিয়ে পতাকা বৈঠকের আহ্বান জানায় বিজিবি ।

৫০ বিজিবি’র ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর হুমায়ুন কবির জানান, ভারতের পুলিশের কাছে নিহতের লাশ হস্তান্তর করেছে বিএসএফ। পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে লাশ ফেরত দেওয়ার কথা জানিয়েছে বিএসএফ।

হুমায়ুন কবির আরও বলেন, সীমান্তবাসীদের মধ্যে কাঁটাতারের বেড়া অতিক্রম না করার জন্য সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালানোর পরেও এধরনের অপতৎপরতা অত্যন্ত দুঃখজনক।