• রবিবার, এপ্রিল ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:৩৩ রাত

ওষুধ কিনতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী

  • প্রকাশিত ০৯:৫৮ সকাল জানুয়ারী ১৩, ২০২০
শিশু নির্যাতন
প্রতীকী ছবি

নরসিংদী সদর হাসপাতালের এক চিকিৎসক জানান, ‘পাশবিক অত্যাচারে শিশুটির অনেক রক্তক্ষরণ হচ্ছে এবং প্রচণ্ড মানসিক আঘাত পেয়েছে’

নরসিংদীতে তৃতীয় শ্রেণি পড়ুয়া এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

রবিবার (১২ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় নরসিংদী সদর উপজেলায় এই ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত অবস্থায় শিশুটিকে প্রথমে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নির্যাতিতা শিশুটির পরিবার ও পুলিশ জানায়, রবিবার সন্ধ্যায় শিশুটি বাড়ির পাশের দোকানে ওষুধ কিনতে যায়। এসময় পার্শ্ববর্তী একটি উপজেলার বখাটে আলামিন শিশুটির মুখ চেপে ধরে নিয়ে যায়। এরপর পার্শ্ববর্তী উপজেলার একটি কলাবাগানে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। পরে শিশুটির পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

নরসিংদী সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মাহমুদুল কবীর জানিয়েছেন, “পাশবিক অত্যাচারে মেয়েটির অনেক রক্তক্ষরণ হচ্ছে এবং প্রচণ্ড মানসিক আঘাত পেয়েছে।” উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

নরসিংদী সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সৈয়দুজ্জামান বলেন, “ঘটনার সংবাদ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শিশুটির সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। পুলিশের আর্থিক সহযোগিতায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।”

অভিযুক্ত ধর্ষক আলামিনকে ধরতে পুলিশের বেশ কয়েকটি টিম অভিযানে নেমেছে বলেও তিনি জানান।