• বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৯ রাত

চট্টগ্রামে সমবায় প্রতিষ্ঠানে অভিযান, সাড়ে ৮ কোটি টাকা জব্দ!

  • প্রকাশিত ১২:৫৫ দুপুর জানুয়ারী ১৫, ২০২০
চট্টগ্রাম
চট্টগ্রাম মহানগরীর ইপিজেড এলাকার চৌধুরী মার্কেটে অভিযান চালিয়ে “রূপসা কিং গ্রুপ” নামের একটি বহুমুখী (মাল্টিপারপাস) প্রতিষ্ঠানের কার্যালয় থেকে নগদ ৮ কোটি ৪২ লাখ টাকা জব্দ করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি) ইউএনবি

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) বিকাল থেকে ইপিজেড থানা পুলিশের সহায়তায় ওই প্রতিষ্ঠানে এ অভিযান শুরু হলেও তা মধ্যরাত পর্যন্ত অব্যাহত ছিল

চট্টগ্রাম মহানগরীর ইপিজেড এলাকার চৌধুরী মার্কেটে অভিযান চালিয়ে “রূপসা কিং গ্রুপ” নামের একটি বহুমুখী (মাল্টিপারপাস) প্রতিষ্ঠানের কার্যালয় থেকে নগদ ৮ কোটি ৪২ লাখ টাকা জব্দ করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) বিকাল থেকে ইপিজেড থানা পুলিশের সহায়তায় ওই প্রতিষ্ঠানে এ অভিযান শুরু হলেও তা মধ্যরাত পর্যন্ত অব্যাহত ছিল।

সিএমপি কমিশনার মাহাবুবুর রহমান বলেন, “ডিএমপি ডিবির একটি দল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে ইপিজেড এলাকায় অভিযান শুরু করে। একটি সমবায় ক্ষুদ্রঋণ প্রতিষ্ঠান প্রতারণা করে গার্মেন্ট শ্রমিকদের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে, এধরনের একটি অভিযোগ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে জমা হয়, যার ভিত্তিতে এ অভিযান।"

“রূপসা কিং গ্রুপ" নামের ওই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ক্ষুদ্রঋণ প্রতিষ্ঠানের নামে ব্যবসা পরিচালনার অভিযোগ রয়েছে। সেইসাথে ইপিজেডের পোশাক শিল্প কারখানায় কর্মরত শ্রমিকসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষের কাছ থেকে অধিক মুনাফার লোভ দেখিয়ে টাকা জমা রাখার অভিযোগও রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে।

পুলিশ জানায়, প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে আসা বিভিন্ন অভিযোগের ভিত্তিতে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একটি বিশেষ দল চট্টগ্রাম পুলিশের সহায়তায় এই তল্লাশি অভিযান চালায়।

এদিকে ইপিজেড মোড়স্থ চৌধুরী মার্কেটের ওই কার্যালয়ে অভিযানকালে প্রতিষ্ঠানটির কয়েক হাজার গ্রাহক (প্রধানত ইপেজেড শ্রমিক) ওই এলাকা ঘেরাও করে রেখে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে ও তাদের জমা টাকা ফেরত চায়।

অভিযোগ রয়েছে, ইপিজেডসহ পতেঙ্গা শিল্প অঞ্চলের হাজার হাজার নারী-পুরুষকে অধিক মুনাফার লোভে ফেলে সমিতির নামে শত কোটি টাকা হাতিয়ে নেয় প্রতিষ্ঠানটি। অর্থ জমা রাখাদের মধ্যে বড় একটা অংশই নারী শ্রমিক। তাদের উপার্জিত অর্থের একটা অংশ সেখানে জমা রাখে।

ইপিজেড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মোহাম্মদ নুরুল হুদা বলেন, “গ্রাহকের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ডিএমপির ডিবি রূপসা কিং গ্রুপ প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করছে। সেখানে বিপুল নগদ টাকার সন্ধান পাওয়া গেছে। কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করছে ডিবি।"