• বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:০৮ সকাল

৮৮ বছর বয়সে বিয়ে করে সন্তানদের পিটুনির শিকার বৃদ্ধ

  • প্রকাশিত ০৮:১৪ রাত জানুয়ারী ১৫, ২০২০
গণপিটুনি
প্রতীকী ছবি।

মালেক মিয়া ৮৮ বছর বয়সে আবার বিয়ে করেছেন। বিষয়টি ছেলেদের সম্মান নষ্ট করেছে বলে বাবা-ছেলেদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল

যশোরে ৮৮ বছর বয়সে বিয়ে করার জন্য সন্তানদের মারধরের শিকার হয়েছেন আব্দুল মালেক (৮৮) নামের এক ব্যক্তি।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে যশোর সদর উপজেলার বাহাদুরপুর স্কুলপাড়ায় তার নিজ বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। 

আব্দুল মালেকের দাবি, সন্তানদের জমি লিখে না দেওয়ায় তাকে মারপিট করা হয়েছে। তবে স্থানীয়রা বলছে, শেষ বয়সে বিয়ে করায় ছেলেরা তাকে মারধর করেছে। 

আব্দুল মালেকের অভিযোগ, দুই ছেলে মনিরুল ও মারুফ তাদের স্ত্রীদের সহযোগিতায় তাকে মুগুর দিয়ে পিটিয়েছে। তাদের মারপিটে পা ফেটে রক্তও বের হয়েছে। 

তিনি বলেন, “আট বিঘে জমির মধ্যে তিন বিঘে ছেলেদের দিয়েছি। এখন ওদের আরও জমি দিতে হবে, রাজি না হওয়ায় আমাকে মারলো। আমি ওদের নামে মামলা করব।”

প্রতিবেশী আব্দুর রশিদ বলেন, মালেক মিয়া ৮৮ বছর বয়সে আবার বিয়ে করেছেন। বিষয়টি ছেলেদের সম্মান নষ্ট করেছে বলে বাবা-ছেলেদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার সালিশ-বৈঠকও হয়েছে। 

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার আহম্মেদ তারেক শামস বলেন, “তিনি শঙ্কামুক্ত।”

উপশহর ক্যাম্পের ইনচার্জ ইনচার্জ আব্দুল লতিফ বলেন, “বিষয়টি আমার জানা নেই। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”