• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪০ রাত

জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ডেকে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ

  • প্রকাশিত ১২:২৩ দুপুর জানুয়ারী ১৬, ২০২০
যৌন হেনস্থা
প্রতীকী ছবি

ধর্ষকদের সহায়তার অভিযোগে এক নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

গাজীপুরের শ্রীপুরে এক স্কুলছাত্রীকে জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তিন কিশোরের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় ভুক্তভোগী কিশোরীর মায়ের দায়ের করা মামলার পরিপ্রেক্ষিতে একজনকে গ্রেফতার করেছে শ্রীপুর থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের ফরিদপুর (নয়নপুর) গ্রামে এ গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে। শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাজমুল সাকিব ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অভিযুক্ত ধর্ষকরা হলো- নয়নপুর গ্রামের শরিফ (১৮), সুজন (১৯) ও শরীফ (২০)। এছাড়া মামলায় উর্মি (১৮) নামে এক নারীকেও আসামি করা হয়েছে। অভিযোগ, ধর্ষকদের সহায়তা করেছেন তিনি।


আরও পড়ুন - বাড়ি ভাড়া দিতে না পারায় নারী শ্রমিককে গণধর্ষণ


ধর্ষণের পর মেয়েটিকে বাড়ির পাশে ফেলা রাখা হয় উল্লেখ করে বুধবার দিবাগত রাতে দায়ের করা মামলার এজাহারে বাদী বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পাশের বাড়ির উর্মি তার মেয়েকে আসামি সুজনের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে নিয়ে যায়। খাবার খাওয়ার পর তাকে জোর করে কোমল পানীয় খাইয়ে অচেতন করে বাড়ির কাছে ঝোপের ভেতর নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। 

মেয়েটির মা জানান, সন্ধ্যা ৭টার দিকে কর্মস্থল থেকে ফিরে মেয়েকে না পেয়ে স্বজনদের সঙ্গে নিয়ে খোঁজ শুরু করেন তিনি। সন্ধান না পেয়ে রাত ১০টার দিকে ফিরে এলে বাড়ি গেটে অচেতন অবস্থায় মেয়েকে দেখতে পান।

পরদিন (বুধবার) মেয়েটি স্কুল থেকে ফিরে ধর্ষণের বিষয়টি মাকে জানায়।


আরও পড়ুন - টাকা শোধ করতে না পেরে মেয়েকে ধর্ষণের অনুমতি দিলো বাবা


এসআই নাজমুল সাকিব জানান, বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় ভুক্তভোগী মেয়েটিকে সঙ্গে নিয়ে থানায় এসে অভিযোগ করেন তার মা। রাতেই অভিযুক্ত উর্মিকে গ্রেফতার করা হয়। অন্য আসামিরা ঘটনার পর থেকে পলাতক। 

নির্যাতনের শিকার স্কুলছাত্রীকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।