• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪০ রাত

৩ মাস ধরে আটকে রেখে তরুণীকে ধর্ষণ

  • প্রকাশিত ০৫:৪৫ সন্ধ্যা জানুয়ারী ১৬, ২০২০
গণধর্ষণ-ধর্ষণ
প্রতীকী ছবি বিগস্টক

ভুক্তভোগী ছাড়াও আরেক তরুণীকে আটকে রেখেছিলেন আসামি মানিক

সিলেটে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক তরুণীকে তিন মাস আটকে রেখে ধর্ষণ ও নির্যাতনের অভিযোগে শাহ আলম আহমদ মানিক (৩৬) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) সিএমপি'র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া এন্ড কমিউনিকেশন) জেদান আল মুসা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। গ্রেফতার মানিক গোটাটিকর এলাকার জুবেল মিয়ার কলোনির বাসিন্দা। মঙ্গলবার অভিযান চালিয়ে মোগলাবাজার থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। অভিযানকালে নির্যাতনের শিকার তরুণীসহ আরও এক তরুণীকে উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ৩ মাস আগে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ওই তরুণীকে ওই কলোনিতে নিয়ে আসেন শাহ আলম মানিক। কিন্তু বিয়ে না করে ভয়ভীতি দেখিয়ে ৩ মাস আটকে রেখে ওই তরুণীকে ধর্ষণ ও নির্যাতন করেন তিনি।

গত মঙ্গলবার এই ব্যাপারে অভিযোগ পেয়ে অভিযান চালিয়ে মানিককে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ ঘটনায় মোগলাবাজার থানায় মানিকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০(সং/০৩) এর ৯(১) ধারায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

মোগলাবাজার থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার হোসেন বলেন, "ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে। আসামি মানিককে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। চুরি-ডাকাতির সাথেও তার সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে আমরা তথ্য পেয়েছি। তদন্তের মাধ্যমে তার উপযুক্ত শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।"