• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪০ রাত

মানিকগঞ্জে সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে ‘গণধর্ষণ’

  • প্রকাশিত ০৯:৩৭ রাত জানুয়ারী ১৬, ২০২০
গণধর্ষণ-ধর্ষণ
প্রতীকী ছবি বিগস্টক

বাড়ি ফাঁকা স্থানে হওয়ায় তাদের চিৎকারে কেউ এগিয়ে আসেননি

মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলায় সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে এক গৃহবধূকে (২৪) গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ জানুয়ারি) ভুক্তভোগী নারীর পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

তারা হলেন- মো. লেবু, মতিয়ার রহমান, আবদুল মাজেদ ও মো. জহুর।

ভুক্তভোগী নারীর পরিবারের বরাত দিয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিঙ্গাইর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হাবিবুর রহমান জানান, সিঙ্গাইর উপজেলার একটি গ্রামের বাড়িতে ওই নারী স্বামী ও দুই সন্তানকে নিয়ে থাকেন। বুধবার রাত ১২টার দিকে সিঁধ কেটে ঘরে প্রবেশ করেন সাত-আটজন ব্যক্তি। পরে ওই নারীর স্বামীকে হাত-পা বেঁধে পাশের ঘরের কক্ষে আটকে রাখেন তারা। এরপর পাঁচজন ওই নারীকে গণধর্ষণ করে পালিয়ে যান। বাড়ি ফাঁকা স্থানে হওয়ায় তাদের চিৎকারে কেউ এগিয়ে আসেননি।

বৃহস্পতিবার সকালে খবর পেয়ে পুলিশ ওই গৃহবধূকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করে।

পরে পুলিশ ওই গৃহবধূর স্বামীর দেওয়া তথ্যমতে সিঙ্গাইরের চারিগ্রাম এলাকা থেকে মো. লেবু (৪০) নামের একজনকে আটক করে।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভুক্তভোগী নারীর স্বামী বাদী হয়ে লেবু, মতিয়ার রহমান, আবদুল মাজেদ ও মো. জহুরসহ অজ্ঞাত আরও তিন-চারজনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন।

হাবিবুর রহমান জানান, ধর্ষণের ঘটনায় এজাহার নামীয় চার আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।