• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪০ রাত

ক্ষেত থেকেই পেঁয়াজ চুরি!

  • প্রকাশিত ১০:০৮ সকাল জানুয়ারী ১৭, ২০২০
পেঁয়াজ
পেঁয়াজ ফাইল ছবি/ঢাকা ট্রিবিউন

গত কিছুদিন ধরে রাতে বেলায় ক্ষেত থেকেই চুরি হয়ে যাচ্ছে পেঁয়াজ

পেঁয়াজ নিয়ে আলোচনা যেন থামছেই না। এবার সাতক্ষীরার বিভিন্ন গ্রামে ফসলের মাঠ থেকেই চুরি হয়ে গেছে পেঁয়াজ। চুরি ঠেকাতে হিমশিম খেয়ে সামাজিকভাবে বিষয়টি প্রতিরোধের ওপর জোর দিতে বলছে পুলিশ প্রশাসন।

বার্তা সংস্থা ইউএনবি'র প্রতিবেদনে বলা হয়, সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার দিগং গ্রামে বিভিন্ন ফসলের মাঠে রাত জেগে টর্চ লাইট নিয়ে পাহারা দিতে দেখা যায় এলাকার লোকজনকে। কারণ জানতে সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, গত কিছুদিন ধরে রাতে বেলায় ক্ষেত থেকেই চুরি হয়ে যাচ্ছে পেঁয়াজ।

কলারোয়ার এক কৃষিজীবী আশরাফুল জানান, তাদের এলাকাজুড়ে বর্তমানে পেঁয়াজ চুরির হিড়িক পড়েছে। পুরো ফসলী এলাকা পাহারা দেওয়া সম্ভব না হওয়ায় তারা প্রতিদিন একেক পাশে পাহারা দিচ্ছেন। তবে যেদিন যে এলাকায় পাহারা দেওয়া হয়, চোরেরা সেদিন অন্য এলাকায় চুরি করছে।

সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়ন পরিষদের দফাদার এজাহার আলী বলেন, সাধারণ মানুষ গ্রাম্য দফাদারদের সমীহ করে চলে। সেই দফাদার হয়েও রেহাই পাননি তিনি। তার ক্ষেতের সব পেঁয়াজ চুরি হয়ে গেছে। এর আগে কখনই ফসলের মাঠে এভাবে পাহারা দিতে হয়নি। কিন্তু পেঁয়াজের দাম বাড়ার পরে ক্ষেত থেকে পেঁয়াজ চুরির ঘটনা ঘটে চলেছে। ফলে কৃষকরা অপরিপক্ক অবস্থায় পেঁয়াজ তুলে ফেলতে বাধ্য হচ্ছেন।

কলারোয়া উপজেলার পেঁয়াজ চাষি আবুল হোসেন ভুট্টো বলেন, এবার পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ার পর পেঁয়াজের বীজের দামও বেড়েছে। ফলে কৃষক প্রথমেই পড়েছে এক বড় সংকটে তারপর আবার এই চুরি যাওয়াতে তাদের বড় ধরনের লোকসান হয়েছে।

কলারোয়া উপজেলার পেঁয়াজ চাষি ছবুর দাই, নওশের আলী দাই, নজরুল দাই, শাহালম গাজী সাইদুল ইসলাম, সাত্তার গাজীসহ অনেক কৃষকই নিজেদের ক্ষেত থেকে পেঁয়াজ চুরি হয়ে যাওয়ার কথা জানান। চুরি ঠেকাতে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা।

এ বিষয়ে অবগত থাকার কথা উল্লেখ করে সাতক্ষীরার বিশেষ শাখার সহকারি পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম জানান, ক্ষেতে পেঁয়াজ চুরি ঠেকাতে সম্মিলিত প্রতিরোধের উদ্যোগ এবং কেউ অভিযোগ দিলে তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।