• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৪ রাত

বৃদ্ধ বাবাকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে খুন

  • প্রকাশিত ১০:১৫ রাত জানুয়ারী ১৯, ২০২০
লাশ
প্রতীকী ছবি

বাবা ছেলেকে বলেন, ‘তুই ফাইজলামি করিস কেন? তোকে আবার হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করাবো'

চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলায় বৃদ্ধ বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে সন্তানের বিরুদ্ধে। রবিবার (১৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার চিতোষী পশ্চিম ইউনিয়নের সেতিনারায়ণপুর বড় বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, পারিবারিক সমস্যা নিয়ে বাবা চেরাগ আলীর (৭০) সঙ্গে ছেলে আকবর আলীর (৩৫) বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে ছেলে তার বাবা-মাকে দা দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক আহত করেন। এতে চেরাগ আলী ঘটনাস্থলেই নিহত হন। পরে ছেলে আকবর ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। এ সময় মায়ের চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

পরে শাহরাস্তি থানার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহ আলম ও পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শহিদুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মরদেহ থানায় নিয়ে যান।

চিতোষী পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান জোবায়েদ কবির বলেন, "আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে জানতে পারি, ঝগড়ার এক পর্যায়ে ছেলে তার বৃদ্ধ বাবাকে হত্যা করে। ছেলেটি কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন বলে জানতে পেরেছি।"

ওসি শাহ আলম জানান, দুই মাস আগেও ছেলে আকবর নাঙ্গলকোট হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। পরে টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে না পারায় তাকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। 

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, "আজ আকবর তার বাবার সঙ্গে কাজ করছিলেন। এক পর্যায়ে তার বাবা নাকি ছেলেকে বলেন, ‘তুই ফাইজলামি করিস কেন? তোকে আবার হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করাবো।' এ কথা বলে বাড়িতে আসার পর ছেনি দিয়ে বাবা-মাকে এলোপাথাড়ি কোপান আকবর। এতে বাবা ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।"