• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৪ রাত

ইবিতে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, আহত ১০

  • প্রকাশিত ০৫:২৫ সন্ধ্যা জানুয়ারী ২১, ২০২০
ইবি
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ঢাকা ট্রিবিউন

সংঘর্ষ চলাকালে ক্যাম্পাসে তিনটি ককটেল বোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়

অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) বেলা দেড়টার দিকে ক্যাম্পাসের মূল ফটকের সামনে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদকের অনুসারীদের সঙ্গে পদবঞ্চিত নেতা-কর্মীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। 

সংঘর্ষে শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিবসহ অন্তত ১০ নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। তাৎক্ষণিকভাবে আহত অন্যান্যদের পরিচয় জানা যায়নি। গুরুতর আহতাবস্থায় রাকিবসহ ৩ জনকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও বাকিদের ইবি মেডিকেলে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদক ক্যাম্পাসে এসেছেন, এমন খবরে মঙ্গলবার সকাল থেকেই ক্যাম্পাসে অবস্থান নিতে শুরু করেন পদবঞ্চিত নেতা-কর্মীরা। 

এরইমধ্যে সভাপতি রবিউল ইসলাম পলাশ ও সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিবের অনুসারীরা মিছিল নিয়ে মূল ফটকে গেলে সংঘর্ষ শুরু হয়। অভিযোগ উঠেছে, পদবঞ্চিত নেতা মিজানুর রহমান লালন, ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত, শিশির ইসলাম বাবু, তৌকির মাহফুজ মাসুদের নেতৃত্বে তাদের ওপর হামলা করা হয়েছে।

তবে এবিষয়ে অভিযুক্তদের কারও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এদিকে, সংঘর্ষ চলাকালীন সময়ে ক্যাম্পাসে তিনটি ককটেল বোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয় বলেও জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আরিফ জানান, দুইপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তবে পরিস্থিতি এখন শান্ত।

এবিষয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) ড. আনিছুর রহমান বলেন, যেকোনো ধরনের অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, র‍্যাব ও গোয়েন্দা বাহিনী মাঠে রয়েছে।