• শুক্রবার, এপ্রিল ০৩, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:০৪ দুপুর

আসামি ধরতে গিয়ে পিটুনি খেলো পুলিশ

  • প্রকাশিত ১১:০৫ সকাল জানুয়ারী ২৭, ২০২০
আহত-পুলিশ
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এএসআই গোলাম রসুল। ঢাকা ট্রিবিউন

পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় জড়িত ৩ নারীকে অভিযান চালিয়ে আটক করা হয়েছে

কুষ্টিয়ার খোকসায় ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিকে গ্রেফতার করতে গিয়ে আসামি ও তার পরিবারের সদস্যদের হামলার শিকার হয়েছেন পুলিশ সদস্যরা।

রবিবার (২৬ জানুয়ারি) বিকালে উপজেলার শিমুলিয়া ইউনিয়নের মানিকাট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মজিবর রহমান।

পুলিশ জানায়, রবিবার বিকেলে শিমুলিয়া ইউনিয়নের মানিকাট গ্রামে একটি সিআর মামলার ওয়ারেন্টেভুক্ত আসামি সিদ্দিক আলীকে গ্রেফতার করতে তার বাড়িতে যায় সহকারী-উপ পরিদর্শক(এএসআই) গোলাম রসুলের নেতৃত্বাধীন পুলিশের একটি দল। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সিদ্দিক তার ঘরের খাটের নিচে আত্মগোপন করে। এসময় পুলিশ তাকে আটকের চেষ্টা করলে সিদ্দিক ও তার পরিবারের সদস্যরা পুলিশের উপর চড়াও হন। তারা পুলিশের হাতে থাকা হ্যান্ডকাপ ছিনিয়ে নিয়ে গোলাম রসুলের মাথায় আঘাত করলে। তিনি গুরুত্বর আহত হন। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

পরে খোকসা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে আসামি সিদ্দিক ও হামলায় জড়িত তিন মহিলাকে আটক করে।

খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডাঃ আশরাফুল আলম জানান, "গোলাম রসুলের মাথায় কয়েকটি সেলাই লেগেছে। তবে রোগী মোটামুটি ভালো আছেন।" 

ওসি মজিবর রহমান ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, "পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সিদ্দিকসহ পুলিশের ওপর হামলায় জড়িত ৩ নারীকে আটক করা হয়েছে।"