• রবিবার, এপ্রিল ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০৪ রাত

পুলিশের ধাওয়ায় প্রাণ গেলো গাড়িচালকের

  • প্রকাশিত ১২:৪৬ দুপুর জানুয়ারী ২৭, ২০২০
মৃত্যু-সাতক্ষীরা
সামাদ মোড়লের আকস্মিক মৃত্যুতে শোকবিহব্বল হয়ে পড়েন তার স্বজনেরা। ঢাকা ট্রিবিউন

চাঁদা না দেওয়ায় চুকনগর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই মাহমুদ গাড়িচালকদের ধাওয়া করছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে

সাতক্ষীরায় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে দ্রুত গতিতে চালাতে গিয়ে এক গাড়ি চালকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (২৭ জানুয়ারি) সকালে তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা হারুন-অর-রশিদ কলেজের সামনে এ ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওয়াহিদ মুর্শেদ।

নিহত মো. সামাদ মোড়ল পাটকেলঘাটা থানার নগরঘাটা ইউনিয়নের বাসিন্দা। তিনি একটি মাহেন্দ্র গাড়ির চালক ছিলেন। এই ঘটনায় অভিযোগের আঙুল উঠেছে চুকবগর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মাহমুদের বিরুদ্ধে।

স্থানীয় মাহেন্দ্র চালক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রাজিব বিশ্বাস জানান, দীর্ঘদিন ধরেই চুকনগর হাইওয়ে ফাঁড়ির এসএসআই মাহমুদ অবৈধভাবে তাদের কাছে চাঁদা দাবি করে আসছেন। চাঁদা না দেওয়ায় আজ (সোমবার) সকালে চুকনগর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসএসআই মাহমুদ মাহেন্দ্র চালকদের উপর চড়াও হন। এক পর্যায়ে তিনি মোটরসাইকেলে করে ধাওয়া করা শুরু। হারুন-অর-রশিদ কলেজের সামনে তিনি হঠাৎ করেই সামাদের গাড়ির সামনে গিয়ে ব্রেক করেন। এতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তায় ছিটকে পড়েন চালক সামাদ এবং গাড়িটি উল্টে তার শরীরের উপর পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

পাটকেলঘাটা থানার (ওসি) ওয়াহিদ মুর্শেদ বলেন, "গাড়ি উল্টে এক চালকের মৃত্যু হয়েছে। তার লাশ বর্তমানে থানায় রাখা হয়েছে। ময়ান্তদন্তের পর তার লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।"

এ ঘটনার সাথে পুলিশের সম্পৃক্ততা আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, "আমিও লোকমুখে শুনেছি যে পুলিশের ধাওয়া খেয়ে ওই গাড়িচালকের মৃত্যু হয়েছে। তবে প্রকৃত ঘটনা তদন্ত না করে বলা সম্ভব নয়।"