• মঙ্গলবার, এপ্রিল ০৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:২৭ রাত

জাবি শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে উপাচার্যপন্থীদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা

  • প্রকাশিত ০৬:১২ সন্ধ্যা জানুয়ারী ২৭, ২০২০
জাবি
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার। সংগৃহীত

কার্যনির্বাহী পরিষদের ১৫টি পদের মধ্যে সভাপতি, সহ-সভাপতি, কোষাধ্যক্ষসহ নয়টি পদে জয় লাভ করেছেন উপাচার্যপন্থিরা

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদ- ২০২০ এর নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামপন্থী শিক্ষকদের জোট “বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ”। কার্যনির্বাহী পরিষদের ১৫টি পদের মধ্যে সভাপতি, সহ-সভাপতি, কোষাধ্যক্ষসহ নয়টি পদে জয় লাভ করেছেন তারা।

অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক, যুগ্ম সম্পাদকসহ মোট ছয়টি পদে জয় লাভ করেছেন উপাচার্য বিরোধী শিক্ষকদের জোট “সম্মিলিত শিক্ষক সমাজ”।

ভোট গণনা শেষে সোমবার (২৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের অধ্যাপক ড. এ কে এম আবুল কালাম এ ফলাফল ঘোষণা করেন। 

এর আগে সকাল সাড়ে নয়টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ক্লাবে ভোট গ্রহণ চলে। নির্বাচনে ৫৯৮ জন ভোটারের মধ্যে ৫৬০ জন শিক্ষক তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। 

নির্বাচন কমিশনার সূত্রে জানা যায়, “বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ” প্যানেল থেকে ২৭১ ভোট পেয়ে সভাপতি পদে জয় পেয়েছেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এ এ মামুন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপাচার্য বিরোধী প্যানেলের ফার্মেসি বিভাগের অধ্যাপক মো. সোহেল রানা ২৬৫ ভোট পেয়েছেন। সাধারণ সম্পাদক পদে ২৮৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ আলমগীর কবির পেয়েছেন ২৫৩ ভোট। 

সহ-সভাপতি পদে ২৪৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক মো. হাসিবুর রহমান। কোষাধ্যক্ষ পদে ৩২৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিশট্রেশনের অধ্যাপক মো. মোতাহের হোসেন। যুগ্ম সম্পাদক পদে ২৮৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন প্রাণ রসায়ন অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক বোরহান উদ্দিন। 

এছাড়া সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছে অধ্যাপক মনোয়ার হোসেন (৩৩২ ভোট), উম্মে সায়কা (২৯৭ ভোট), ইসমত আরা (২৯৬ ভোট), মাহফুজা খাতুন (২৯৫ ভোট), ফখরুল ইসলাম (২৯৩ ভোট), বশির আহমেদ (২৮৫ ভোট), আহমেদ রেজা (২৮০ ভোট), হুসনে আরা (২৭২ ভোট), হুসাইন মোহাম্মদ সায়েম (২৬৯ ভোট), মাহবুব কবির (২৬৮ ভোট)। 

এদিকে শিক্ষক পরিষদের নির্বাচন চলাকালে সকাল ১১টায় জাকসু নির্বাচনসহ ছয় দফা দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি করেছেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন জাহাঙ্গীরনগর সংসদের নেতাকর্মীরা। 

ছাত্র ইউনিয়ন বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল রনি বলেন, “আজকে শিক্ষকরা ঠিকই তদের সমিতির নির্বাচন করছেন অথচ দীর্ঘ ২৮ বছর ধরে জাকসু নির্বাচন হয় না তাদের কিংবা প্রশাসনের মাথা ব্যাথা নেই। জাকসু না থাকলে ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব গড়ে উঠবে কীভাবে? সিনেটে শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধিত্ব করবে কে? তাই আমরা অবিলম্বে জাকসু নির্বাচনের সকল কার্যক্রম গ্রহণ করতে প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।”