• মঙ্গলবার, এপ্রিল ০৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৩ সকাল

কক্সবাজারকে ব্যয়বহুল ঘোষণা, সরকারি চাকরিজীবীরা পাবেন বাড়তি সুবিধা

  • প্রকাশিত ১০:৫০ রাত জানুয়ারী ২৮, ২০২০
কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত
সৈয়দ জাকির হোসেন/ঢাকা ট্রিবিউন

রোহিঙ্গাদের আগমনের কারণে প্রচুর বিদেশি সমাগম এবং পর্যটন শহর হওয়ার হওয়ায় দেশি-বিদেশি অসংখ্য মানুষ সেখানে যাতায়াত করেন। ফলে শহরটি জীবনযাত্রার ব্যয় অনেক বেশি

দেশের প্রধান পর্যটন শহর কক্সবাজারকে “ব্যয়বহুল” শহর হিসেবে ঘোষণা করেছে সরকার। এতে শহরটিতে চাকরি সূত্রে অবস্থানরত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বাড়িভাড়াসহ বাড়তি বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

সোমবার (২৭ জানুয়ারি) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, কক্সবাজার শহর বা পৌর এলাকার নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মূল্যবৃদ্ধিসহ বাড়িভাড়া, যানবাহনের ভাড়া, খাদ্য, পোশাকসামগ্রীসহ অন্যান্য ভোগ্যপণ্যের দাম বিবেচনায় কক্সবাজার শহর/পৌর এলাকাকে ব্যয়বহুল হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। 

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, রোহিঙ্গাদের আগমনের কারণে প্রচুর বিদেশি সমাগম এবং পর্যটন শহর হওয়ায় দেশি-বিদেশি অসংখ্য মানুষ সেখানে যাতায়াত করেন। ফলে শহরটি জীবনযাত্রার ব্যয় অনেক বেশি। বিষয়টি তুলে সর্বশেষ জেলা প্রশাসক সম্মেলনে কক্সবাজারকে ব্যয়বহুল শহর ঘোষণার প্রস্তাব করেছিলেন কক্সবাজেরর তৎকালীন জেলা প্রশাসক। সেই প্রস্তাবে ভিত্তিতে বিভিন্ন প্রক্রিয়া শেষে এ প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সরকারি হিসেবে ময়মনসিংহ বাদে দেশের অন্য সাতটি বিভাগীয় শহর, ঢাকার পার্শ্ববর্তী নারায়ণগঞ্জ জেলা, গাজীপুর সিটি করপোরেশন এবং সাভার পৌর এলাকা “ব্যয়বহুল এলাকা” এলাকার তালিকাভুক্ত। নতুন এই প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এই তালিকায় পর্যটন শহর কক্সবাজারও যুক্ত হলো।