• রবিবার, মার্চ ২৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:১২ রাত

রাজশাহীতে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে বেড়েছে শীতের তীব্রতা

  • প্রকাশিত ১১:৩১ সকাল জানুয়ারী ২৯, ২০২০
রাজশাহী
বুধবার (২৯ জানুয়ারি) সকাল থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টিতে তীব্র ঠাণ্ডায় বিপর্যস্ত সাধারণ মানুষ ঢাকা ট্রিবিউন

বুধবার (২৯ জানুয়ারি) সকাল থেকে শুরু হওয়া এ বৃষ্টিতে তীব্র ঠাণ্ডায় বিপর্যস্ত সাধারণ মানুষ

শীতের প্রকোপ আর শৈত প্রবাহের আমেজ কমতে না কমতেই রাজশাহীতে শুরু হয়েছে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি। সেই সঙ্গে বেড়েছে শীতের তীব্রতা।

বুধবার (২৯ জানুয়ারি) সকাল থেকে শুরু হওয়া এ বৃষ্টিতে তীব্র ঠাণ্ডায় বিপর্যস্ত সাধারণ মানুষ।

রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক লতিফা হেলেন জানান, বুধবার সকাল  ৭ টা ৫০ মিনিট থেকে সকাল ৯ টা পর্যান্ত রাজশাহীতে বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ২ মিলিমিটার। এর আগে ১৯ জানুয়ারি এখানে ২.২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছিল। বুধবার সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১২.৮ সেলসিয়াস। বৃষ্টিপাতের কারণে শীতের তীব্রতা আরও বাড়তে পারে। 

তবে সকাল ৯টা ৩৭ মিনিটে মেঘাচ্ছন্ন কেটে আকাশে সূর্যের দেখা মিললেও আবার সূর্য ঢেকে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। তবে সকাল ১০ টার দিকে বৃষ্টি না থাকায়  আবার জীবনযাত্রায় স্বাভাবিক হতে শুরু করে।

নগরী শহীদ কামারুজ্জামান চত্তরে কাজের সন্ধানে আসা দিনমজুর জানান, “শীতের ভোরে হঠাৎ বৃষ্টিতে আটকা পড়ে গেছি। কাজ করানোর জন্য কোন ব্যক্তিকে পাওয়া যাচ্ছে না। তাই কাজ না পেয়ে আবার বাড়ি ফিরে যেতে হতে পারে।”

ব্যাংক কর্মকর্তা সিয়াম আহমেদ বলেন,“ অফিসের উদ্দেশে বের হয়ে বৃষ্টির মধ্য পড়ে ভিজে গেছি।”

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরে গোদাগাড়ীর চব্বিশনগর ব্লকের উপ সহকারি কৃষি কর্মকর্তা জালাল উদ্দিন দেওয়ান বলেন, “এ বৃষ্টির ফলে সরিষা, মসুর, ছোলা, গম, মটর, আলু, পেঁয়াজ, রসুন, পটল, লাউ, খিরা, শসা, ধনিয়াসহ সকল রবি ফসলের উপকার হবে।” 

এছাড়াও আমের মুকুলের জন্য এই বৃষ্টি উপকারে আসবে। আর যদি একটানা কয়েকঘণ্টা বৃষ্টিপাত হয়। তাহলে ক্ষেতে আলুর ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলেও জানান তিনি।