• শুক্রবার, এপ্রিল ০৩, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৩০ দুপুর

র‍্যাবে চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে ঢাকায় এনে খালাতো ভাইকে হত্যা

  • প্রকাশিত ০৪:৫৭ বিকেল জানুয়ারী ৩০, ২০২০
হত্যা
প্রতীকী ছবি

বিমানবন্দর থানার ইকবাল কলোনির ১০৪ নম্বর বাসার সামনের রাস্তায় মাথায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রক্তাক্ত অবস্থায় এক যুবককে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা

র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়নে (র‍্যাব) চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে টাকা নেওয়ার পর আপন খালাতো ভাইকে হত্যা করেছে হৃদয় (২২) নামে এক যুবক। নিহত যুবকের নাম দেলোয়ার হোসেন (৩০)। তার বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়িয়া উপজেলার রাধা কানাই গাংবরাইল গ্রামে।

বুধবার (২৯ জানুয়ারি) রাজধানীর বিমানবন্দর থানা এলাকায় এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ইতোমধ্যে অভিযুক্ত হৃদয়কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঢাকা ট্রিবিউনকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিমানবন্দর থানায় উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শরিফ হোসেন।

এসআই শরিফ জানান, হৃদয় রাজধানীর র‍্যাব অফিসে কাজ করতো বলে পুলিশকে জানিয়েছে। খালাতো ভাইকে সেখানে চাকরি দেওয়ার কথা বলে তার সঙ্গে সাড়ে তিন লাখ টাকায় একটি চুক্তি করে সে। এর আগে তার কাছ থেকে নেয় আড়াই লাখ টাকা। চুক্তি অনুযায়ী বাকি এক লাখ টাকা নিয়ে গত শনিবার রাজধানীতে হৃদয়ের বাসায় গিয়েছিল দেলোয়ার। 

তিনি আরও জানান, বুধবার দুপুর একটার দিকে বিমানবন্দর থানার ইকবাল কলোনির ১০৪ নম্বর বাসার সামনের রাস্তায় মাথায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রক্তাক্ত অবস্থায় এক যুবককে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। তাকে উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে মারা যান তিনি।

ওইদিন রাত সাড়ে ৭টায় কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে বৃহস্পতিবার ভোরে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে পাঠানো হয়।

খালাতো ভাইকে হত্যার কথা স্বীকার করে হৃদয় পুলিশকে জানিয়েছে, সে দেলোয়ারকে ইট দিয়ে মাথায় আঘাত করেছিল, তবে হত্যার উদ্দেশে নয়।