• রবিবার, এপ্রিল ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:১০ রাত

ঢাবি থেকে পাকিস্তানি শাসকদের দেওয়া সম্মানসূচক ডিগ্রি প্রত্যাহারের দাবি

  • প্রকাশিত ০৯:৫৬ রাত ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২০
ঢাবি
বিতর্কিত তিন ব্যক্তির সম্মানসূচক ডি-লিট ডিগ্রি বাতিলের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কর্মসূচি। ঢাকা ট্রিবিউন

স্বাধীনতার আগে পাকিস্তান আমলে পাকিস্তানের স্বৈরশাসক আইয়ুব খান, প্রেসিডেন্ট ইস্কান্দার মির্জা ও প্রধানমন্ত্রী খাজা নাজিমুদ্দিনকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডি-লিট ডিগ্রি দেওয়া হয়েছিল

পাকিস্তান আমলে পাকিস্তানের বিতর্কিত শাসকদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দেওয়া সম্মানসূচক ডিগ্রি প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের সামনে অবস্থান নিয়ে এ দাবি জানান তারা।

বিতর্কিত ওই ব্যক্তিরা হলেন- পাকিস্তানের স্বৈরশাসক আইয়ুব খান, প্রেসিডেন্ট ইস্কান্দার মির্জা ও প্রধানমন্ত্রী খাজা নাজিমুদ্দিন। বাংলাদেশের স্বাধীনতার আগে পাকিস্তান আমলে তাদেরকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডি-লিট ডিগ্রি দেওয়া হয়েছিল।

ভাষা বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সাখাওয়াত আনসারী বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার আগে ও মুক্তিযুদ্ধের সময় তাদের যে অপশাসন ও জঘন্য ভূমিকা ছিল তাতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সম্মানসূচক ডিগ্রি অনেক আগেই প্রত্যাহার করা উচিত ছিল।

“এটা অত্যন্ত দুঃখের ব্যাপার যে এ ক্ষেত্রে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করেনি। আমরা আশা করব, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষ সমাবর্তনের আগে তারা সম্মানসূচক ডিগ্রিগুলো প্রত্যাহার করে নেবে”, যোগ করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর বিশেষ সমাবর্তনের মাধ্যমে তাকে সম্মনসূচক ডি-লিট (মরণোত্তর) ডিগ্রি প্রদান করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।