• রবিবার, এপ্রিল ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০৪ রাত

বিয়েবাড়ি থেকে ফেরার পথে গণধর্ষণের শিকার পার্লারকর্মী

  • প্রকাশিত ০৩:৩৫ বিকেল ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২০
গণধর্ষণ-ধর্ষণ
প্রতীকী ছবি বিগস্টক

এ ঘটনায় অভিযুক্ত চার তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

গাজীপুরের টঙ্গীতে বিউটি পার্লারের এক কর্মীকে (১৬) গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে জেলার টঙ্গীতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত চার তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত অভিযুক্তরা হল-মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার সদরামপুর গ্রামের নয়ন (১৮), বরিশাল জেলার মেহেদীগঞ্জ উপজেলার বাবুগঞ্জ গ্রামের শাহাব উদ্দিন (২০), জামালপুর জেলার বকশিগঞ্জ উপজেলার জিন্নাবাজার এলাকার বাবু মন্ডল (২০) ও ময়মনসিংহ জেলার গৌরীপুর উপজেলার কান্দাপাড়া গ্রামের তোফাজ্জল হোসেন (১৯)। অভিযুক্তরা পেশায় ট্রাক শ্রমিক বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ভুক্তভোগীর বাবা জানান, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে প্রতিবেশী ছোট ভাই আলমকে নিয়ে এলাকার একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে যায় তার মেয়ে। সেখান থেকে ওই কিশোরী রাত পৌনে ১২ টার দিকে সঙ্গী প্রতিবেশী ছোট ভাই আলমকে নিয়ে অটো রিকশা যোগে বাসায় ফিরছিল। রিকশাটিকে অভিযুক্ত ট্রাক শ্রমিকেরা গতিরোধ করে। এসময় তারা ছোট ভাইকে রিকশা থেকে নামিয়ে পার্শ্ববর্তী একটি গাছের সঙ্গে বেঁধে ফেলে। পরে তারা ওই কিশোরীকে গণধর্ষণ করে।

টঙ্গী থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল ইসলাম জানান, অটোরিকশা চালক দ্রুত থানায় এসে ঘটনা অবহিত করে। তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল থেকে ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীকে উদ্ধার ও তার ভাইয়ের বাঁধন খুলে মুক্ত করা হয়। পরে তাদেরকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়।

শনিবার বিকেলে ওই ভুক্তভোগীর বাবা   টঙ্গীর পূর্ব থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত চার তরুণকে ঘটনাস্থল ও আশপাশ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে আটক করা হয়। অভিযুক্তরা ট্রাক শ্রমিক এবং তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওসি।