• রবিবার, এপ্রিল ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:৩২ রাত

করোনাভাইরাসের ঝুঁকির তালিকায় ভারত-মিয়ানমার, নেই বাংলাদেশ

  • প্রকাশিত ০৬:৪২ সন্ধ্যা ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২০
করোনাভাইরাস-উহান
চীনের উহান বিমানবন্দরে যাত্রীদের পরীক্ষা করছেন এক স্বাস্থ্যকর্মী। এএফপি

এশিয়ার ১৭টি দেশের নাম এই তালিকায় উল্লেখ করা হয়েছে

চীন ব্যতীত পৃথিবীর যেসব দেশে নভেল করোনাভাইরাস (২০১৯-এনকভ) ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে সেসব দেশের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে জার্মানির হাম্বল্ট ইউনিভার্সিটি ও রবার্ট কোচ ইনস্টিটিউট।

করোনাভাইরাস সংক্রান্ত বৈশ্বিক ঝুঁকির এই তালিকায় নেই বাংলাদেশের নাম। তবে, তালিকায় রয়েছে ভারত, থাইল্যান্ডসহ এশিয়ার ১৭টি দেশের নাম।

প্রায় ৪ হাজার বিমানবন্দরের ওপর জরিপ চালিয়ে "এক্সপেকটেড গ্লোবাল স্প্রেড অব দ্য নোভেল করোনাভাইরাস" শীর্ষক এই সমীক্ষাটি তৈরি করা হয়েছে। এই ৪ হাজার বিমানবন্দরে বিমান ওঠানামার পরিমাণ, গন্তব্য-ইত্যাদি বিষয় অন্তর্ভুক্ত করে সেই তথ্যের গাণিতিক বিশ্লেষণের মাধ্যমে জরিপের ফলাফল তৈরি করা হয়েছে।

জার্মানির হাম্বল্ট ইউনিভার্সিটি ও রবার্ট কোচ ইনস্টিটিউট কর্তৃক প্রকাশিত তালিকা। সংগৃহীত

শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত পাওয়া তথ্যানুসারে এই তালিকার শীর্ষে রাখা হয়েছে থাইল্যান্ড। এরপরে রয়েছে যথাক্রমে জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, হংকং এবং তাইওয়ান। ভারত রয়েছে তালিকার ১৭ তম অবস্থানে। এছাড়াও এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলোর মধ্যে এই তালিকার মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, মিয়ানমার প্রভৃতি। 

সমীক্ষায় নেতৃত্বদানকারী ড্রিক ব্রকম্যান জানিয়েছেন, "এটি কোনো ভবিষ্যদ্বাণী নয়। সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সরকার যেন এই সমীক্ষা অনুসারে প্রস্তুতি নিতে পারেন সেই জন্যই এই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।"

এই সমীক্ষা অনুযায়ী, দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী বিমানবন্দর দিয়ে এই ভাইরাস ঢোকার সম্ভাবনা ০.০৬৬ শতাংশ, মুম্বাইয়ের ছত্রপতি শিবাজিতে ০.০৩৪ শতাংশ এবং কলকাতার নেতাজি সুভাষ বিমানবন্দরের ০.০২০ শতাংশ।