• রবিবার, এপ্রিল ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:৩৩ রাত

করোনাভাইরাস নাম ব্যবহার করে সাইবার আক্রমণ

  • প্রকাশিত ০১:৩৫ দুপুর ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০
সাইবার আক্রমণ-করোনাভাইরাস
সংগৃহীত

ফোর্বস তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ২২টি দেশে করোনাভাইরাস নাম ব্যবহার করে সাইবার আক্রমণ চালাচ্ছে হ্যাকাররা

ক্রমাগত সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়তে থাকা মারণঘাতি নভেল করোনাভাইরাসের (এনকভ-২০১৯) নাম ব্যবহার করে সাইবার হামলার ঘটনা ঘটাচ্ছেন হ্যাকাররা। করোনাভাইরাস নাম ব্যবহার করে সাইবার আক্রমণের প্রেক্ষিতে দেশবাসীকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ মোবাইল গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ।

রবিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) এক বিবৃতিতে মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, সারাবিশ্বে যখন করোনাভাইরাস আতঙ্ক বিরাজ করছে, সেসময় একশ্রেণির সাইবার অপরাধী করোনাভাইরাস সংক্রান্ত তথ্য উপাত্ত সমৃদ্ধ ম্যালওয়ার দিয়ে হ্যাক করে সর্বশান্ত করছে সাধারণ মানুষকে।

সম্প্রতি বিশ্ববিখ্যাত সাময়িকী ফোর্বস তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ২২টি দেশে করোনাভাইরাস নাম ব্যবহার করে সাইবার আক্রমণ চালাচ্ছে হ্যাকাররা। এই অপরাধীরা ফিশিং ক্যাম্পেইনও করছে। আর এ কাজ করছে ইমোটেড গ্রুপ। তারা বিভিন্ন স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রতিষ্ঠানের নাম ব্যবহার করে ব্যবহারকারীদেরকে সচেতনতার কথা বলে ইমেইল পাঠায়। সেই মেইল খুললেই ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়।

এছাড়া বিভিন্ন নথি পাঠানোর নাম করে ম্যালওয়ার পাঠাচ্ছে অপরাধীরা। যদিও এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে হ্যাকারদের এমন তৎপরতার খবর পাওয়া যায়নি। তবে এবিষয়ে সরকারিভাবে পদক্ষেপ নিলে এবং জনসচেতনতা তৈরি করা হলে হ্যাকারদের কাছ থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব।

ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদেরকে অপ্রয়োজনীয় লিংকে ক্লিক না করার কথা উল্লেখ করে, করোনাভাইরাস নিয়ে কোনো গুজবে কান না দিয়ে আইইডিসিআর এর সহায়তা গ্রহণের পরামর্শ দিয়েছেন মহিউদ্দিন আহমেদ।

এছাড়া যেকোনো সংকটে ৩৩৩ বা ৯৯৯ এ কল দিয়ে সহযোগিতা নেয়ার কথা বলেন তিনি।