• মঙ্গলবার, এপ্রিল ০৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:২৭ রাত

করোনাভাইরাস: চট্টগ্রামে ভাঙার জন্য আনা জাহাজে আটকা ১৭ চীনা

  • প্রকাশিত ০৬:৩৮ সন্ধ্যা ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০
চট্টগ্রাম-চীনা-করোনা
সীতাকুণ্ডের লালবেগ শিপইয়ার্ডে ভাঙার জন্য আনা জাহাজটিতে আটক পড়েছেন ১৭ চীনা নাগরিক। ইউএনবি

জাহাজ থেকে অন্যান্য দেশের নাবিকরা নেমে গেলেও ১৭ চীনা নাবিককে নামতে দেওয়া হয়নি

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড সাগর উপকূলে চীন থেকে ভাঙার জন্য আনা এক জাহাজে তিন দিন ধরে আটকা পড়ে আছেন ১৭ চীনা নাবিক। তাদের তীরে নামতে দেয়নি উপজেলা প্রশাসন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, জাপানের পতাকাবাহী ইউনি হারভেস্ট নামের কার্গো জাহাজটির ওজন প্রায় ৯ হাজার মেট্রিক টন। এটি ২০ জানুয়ারি চীনের উইফং বন্দর থেকে রওনা দেয় এবং গত শনিবার বিকালে একে কাটার জন্য সীতাকুণ্ডের সোনাইছড়ি ইউনিয়নের লালবেগ শিপইয়ার্ডে রাখা হয়। কিন্তু এতে থাকা চীনা নাবিকদের প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাস (২০১৯-এনকভ) আতঙ্কে নিচে নামতে দেওয়া হয়নি।

তবে, জাহাজটির আমদানিকারক কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে ১৭ চীনা নাবিকের শরীরে কোনো করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব নেই।

আমদানিকারক লিয়াকত আলী বলেন, “চীন থেকে জাহাজটি কাটার জন্য আনার পর যথানিয়মে ইয়ার্ডে সৈকতায়ন করা হয়। পরে জাহাজ থেকে অন্যান্য দেশের নাবিকরা নেমে গেলেও ১৭ চীনা নাবিক এতে আটকা পড়েছেন।”

এ বিষয়ে সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিল্টন রায় বলেন, “জাহাজ সৈকতায়ন করার আগে নাবিকদের তথ্য দেওয়ার নিয়ম থাকলেও শিপইয়ার্ড কর্তৃপক্ষ তা কাউকে অবহিত করেনি।”

লিয়াকত আলী জানান, বিমানের টিকিট নিশ্চিত হলে চীনা নাবিকদের জাহাজ থেকে নামিয়ে সরাসরি চীন পাঠিয়ে দেওয়া হবে।