• মঙ্গলবার, এপ্রিল ০৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৩ সকাল

জেলের ভেতর প্রেমিক-প্রেমিকার বিয়ে

  • প্রকাশিত ০৪:২৯ বিকেল ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০
বিয়ে
প্রতীকী ছবি

প্রায় দুই বছর আগে স্বপন ও ওই তরুণীর মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে

গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২'এ নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় বন্দি এক হাজতির সঙ্গে তার প্রেমিকার বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৩টায় কারাগারের অফিস কক্ষে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

বর স্বপন (২২) গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার রাজাবাড়ী ইউনিয়নের চিনাশুখানিয়া গ্রামের আবদুল হকের ছেলে এবং কনেও একই গ্রামের এক বাসিন্দা। 

গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২'এর জেল সুপার জাহানারা বেগম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বর-কনের পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানান, প্রায় দুই বছর আগে স্বপন ও ওই তরুণীর মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তাদের মধ্যে শারিরীক সম্পর্কও হয়। এক পর্যায়ে ওই তরুণী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। পরে স্বপন তাদের সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেন। উপায় না দেখে ওই তরুণী স্বপনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে শ্রীপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় উচ্চ আদালতে গেলে আদালত তাদের দু’জনের বিয়ের নির্দেশ দেন। পরে দুই পক্ষের পরিবারের উপস্থিতিতে শনিবার বিকেলে কারাগারে তাদের দু’জনের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

কাশিমপুর জেল সুপার আরও জানান, উচ্চ আদালতের নির্দেশেই কারাগারের অফিস কক্ষে স্বপন ও ওই তরুণীর বিয়ের আয়োজন করা হয়। গত ৯ ফেব্রুয়ারি আদালতের নির্দেশ কারাগারে আসে। পরে বর ও কনের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়। শনিবার বেলা ১১টার পর থেকেই বিয়ের আয়োজন চলতে থাকে। পরে সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষ করতে বিকেল প্রায় ৩টা বেজে যায়। এ সময় বর ও কনের বাবা-মা, তাদের এক বছরের ছেলে সন্তান ও পরিবারের আরও কয়েকজন সদস্য উপস্থিত ছিলেন। স্থানীয় কাজী আশরাফুর আলম তাদের বিয়ে পড়ান। স্বপন ২০১৮ সালের ১৮ ডিসেম্বর থেকে কারাগারে বন্দি রয়েছে।