• মঙ্গলবার, এপ্রিল ০৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৫ রাত

বাসায় ডেকে নিয়ে গৃহবধূকে অমানবিক নির্যাতন স্বামী-স্ত্রীর

  • প্রকাশিত ০৫:৩৯ সন্ধ্যা ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০
গ্রেফতার
নির্যাতনের ঘটনায় অভিযুক্ত মোস্তাক হোসেন ফয়সালকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ঢাকা ট্রিবিউন

স্বামীর সাথে পরকিয়া সন্দেহে ওই নারীর চুল কেটে দিয়ে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দেন স্ত্রী ফৌজিয়া। এ কাজে তার স্বামী নিজেই সহযোগিতা করেন 


ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কলেজ পাড়ায় বাসায় ডেকে নিয়ে এক গৃহবধূকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে এক দম্পতির বিরুদ্ধে। শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে এই ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সেলিম উদ্দিন।

ভুক্তভোগী গৃহবধূ জানান, অভিযুক্ত মোস্তাক হোসেন ফয়সালের সাথে পূর্বপরিচয়ের সূত্র ধরে প্রায়ই কথা বলতেন তিনি। শনিবার রাতে ফয়সাল তার স্ত্রী ফৌজিয়া আক্তারের সাথে শলাপরামর্শ করে তাকে বাসায় ডেকে নেন। সেখানে পৌঁছানোর পর ফয়সালের পরিবারের অশান্তি সৃষ্টি করছে এমন অভিযোগ তুলে ওই নারীর ওপর অমানবিক নির্যাতন চালান ফৌজিয়া ও ফয়সাল। এক পর্যায়ে ফয়সালের সাথে ওই নারীর অবৈধ সম্পর্ক আছে এমন অভিযোগ তুলে তার চুল কেটে দেন ফৌজিয়া। এই কাজে তাকে সহায়তা করেন ফয়সাল। পরে ওই নারীর শরীরে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দেন তারা। যন্ত্রণায় চিৎকার করতে করতে এক পর্যায়ে অজ্ঞান হয়ে যান ওই নারী।

এদিকে স্থানীয়রা তার চিৎকার শুনতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ এসে ওই নারীকে উদ্ধার করে। এ সময় ফয়সালকে গ্রেফতার করেন তারা। তবে তার স্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়নি।

সদর থানার ওসি মো. সেলিম উদ্দিন জানান, "৯৯৯ এ ফোন পেয়ে নির্যাতিত নারীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ফয়সালকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তবে দুধের শিশু থাকায় তার স্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়নি। এই ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।"