• মঙ্গলবার, এপ্রিল ০৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৪১ রাত

ভয়াবহ বায়ু দূষণ, মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ঢাকাবাসী!

  • প্রকাশিত ০৯:৫৭ রাত ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২০
বায়ু দূষণ
ঢাকার বায়ু দূষণ। ফাইল ছবি ঢাকা ট্রিবিউন

নির্মাণ কাজের নিয়ন্ত্রণহীন ধুলা, যানবাহনের ধোঁয়া, ইটভাটা প্রভৃতি কারণে রাজধানীতে দূষণের মাত্রা চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছেছে। যা নগরবাসীকে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ফেলে দিয়েছে

বিশ্বের দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকালে দ্বিতীয় খারাপ অবস্থানে এসেছে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা।

সকাল ১০টা ৫৫ মিনিটে এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সে (একিউআই) ঢাকার স্কোর ছিল ২২০, যার অর্থ হচ্ছে এ শহরের বাতাসের মান “খুবই অস্বাস্থ্যকর” এবং এ অবস্থায় সবাই মারাত্মক স্বাস্থ্য সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন।

ভিয়েতনামের হ্যানয় ও নেপালের কাঠমান্ডু যথাক্রমে ২২৬ ও ২১৫ একিউআই স্কোর নিয়ে বিশ্বের দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় প্রথম ও তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

একিউআই মান ২০১ থেকে ৩০০ হলে স্বাস্থ্য সতর্কতাসহ তা জরুরি অবস্থা হিসেবে বিবেচিত হয়। এ অবস্থায় শিশু, প্রবীণ এবং অসুস্থ রোগীদের বাড়ির ভেতরে এবং অন্যদের বাড়ির বাইরের কার্যক্রম সীমাবদ্ধ রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে।


আরও পড়ুন - গুলশান-বনানী-বারিধারার বাতাসে ‘অতি বিপজ্জনক’ মাত্রার দূষণ


প্রতিদিনের বাতাসের মান নিয়ে তৈরি করা একিউআই সূচক একটি নির্দিষ্ট শহরের বাতাস কতটুকু নির্মল বা দূষিত সে সম্পর্কে মানুষকে তথ্য দেয় এবং তাদের জন্য কোন ধরনের স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি হতে পারে তা জানায়।

জনবহুল ঢাকা দীর্ঘদিন ধরেই দূষিত বাতাস নিয়ে হিমশিম খাচ্ছে। মূলত নির্মাণ কাজের নিয়ন্ত্রণহীন ধুলা, যানবাহনের ধোঁয়া, ইটভাটা প্রভৃতি কারণে রাজধানীতে দূষণের মাত্রা চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছেছে। যা নগরবাসীকে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ফেলে দিয়েছে।

বিশ্বব্যাংক ও পরিবেশ অধিদপ্তরের এক প্রতিবেদনে ঢাকার বায়ুদূষণের প্রধান কারণ হিসেবে এ শহরের চারপাশে অবস্থিত ইটভাটাকে চিহ্নিত করা হয়েছে।