• শুক্রবার, এপ্রিল ০৩, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:৫৩ দুপুর

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে মসজিদে আগুন

  • প্রকাশিত ০৪:১৬ বিকেল ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০
গোপালগঞ্জ মসজিদ আগুন
আগুনে পুড়ে গেছে মসজিদের ভেতরে থাকা ধর্মীয় গ্রন্থ ঢাকা ট্রিবিউন

মসজিদটির জমি নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে গোপালগঞ্জে একটি মসজিদে আগুন দেওয়া হয়েছে। এতে কাঠের তৈরি মসজিদটির বেশিরভাগ অংশই ভস্মীভূত হয়ে গেছে। পুড়ে গেছে ভেতরে থাকা ধর্মীয় গ্রন্থগুলোও। ঘটনার পর এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। জমি নিয়ে বিরোধের জেরে মসজিদে আগুন লাগানো হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। 

রবিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে কোটালীপাড়া উপজেলার তারাশী গ্রামের মোহাম্মদ তালুকদারের বাড়ি জামে মসজিদে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ সোমবার দুপুরে আমিনুল তালুকদার (৪০), হাফিজুল তালুকদার (৩৫) ও টিপু তালুকদার (৩৮) নামে তিনজনকে আটক করেছে।

স্থানীয় হিরণ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য শাহানুর শেখ জানান, ওই জমি নিয়ে মোহাম্মদ তালুকদার ও আহম্মদ তালুকদার নামে দুই সহোদরের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। বিবাদমান জমিতে মসজিদটি নির্মাণ করেছিলেন মোহাম্মদ তালুকদারের ছেলে আমিনুল তালুকদারসহ ৮ ছেলে।

ছবি: ঢাকা ট্রিবিউনমসজিদটির মূল উদ্যোক্তা আমিনুল তালুদকার বলেন, ‘‘রাত দেড়টার দিকে আগুন দেখতে পেয়ে আমি দৌড়ে মসজিদের কাছে যাই। তখন ঘটনাস্থল থেকে আমার চাচা আহম্মদ তালুকদার ও টিপু তালুকদারকে দৌড়ে যেতে দেখেছি। আমার ধারণা তারাই মসজিদে আগুন দিয়েছে।’’ 

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে টিপু তালুকদার বলেন, ‘‘বিরোধপূর্ণ জায়গায় আমার ভাতিজা আমিনুল ও তার ৭ ভাই মসজিদ নির্মাণ করেছেন। এখন তারা নিজেরাই আগুন লাগিয়ে আমাদের ফাঁসানোর চেষ্টা করছে। আমরা মসজিদে আগুন দেওয়ার মতো পাপের কাজ আমরা করিনি। পুলিশ সুষ্ঠু তদন্ত করলেই প্রকৃত সত্য বেরিয়ে আসবে।’’

কোটালীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ লুৎফর রহমান বলেন, ঘটনায় সন্দেহভাজন ৩ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। মসজিদের জমি নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধ রয়েছে। চাচা ও চাচাতো ভাইদের ফাঁসাতে মসজিদের নির্মাণের মূল উদ্যোক্তা আমিনুল তালুকদার রাতে মসজিদে আগুন দিয়েছে বলে আমাদের কাছে স্বীকার করেছে।