• রবিবার, মার্চ ২৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:১২ রাত

প্রাইভেট পড়তে বেরিয়ে খুন হলেন কলেজছাত্র

  • প্রকাশিত ০২:৫০ দুপুর মার্চ ১৭, ২০২০
নিহত কলেজছাত্র
নিহত ইখলাছ হোসেন নয়ন। সংগৃহীত

মাথায় আঘাত করার পর শ্বাসরোধে তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে বলে পুলিশের ধারণা

যশোরের মণিরামপুরে এক কলেজছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) সকালে উপজেলার পলাশী বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনের মসজিদের পাশ থেকে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে বলে নিশ্চিত করেছেন মণিরামপুর উপজেলার খেদাপাড়া পুলিশ ক্যাম্পের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. সালাহউদ্দিন।

নিহত ইখলাছ হোসেন নয়ন (১৯) বাঘারপাড়া উপজেলার যাদবপুর গ্রামের বাসিব্দা। নয়ন যশোর সদর উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা কলেজের বাণিজ্য বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন। রুদ্রপুর গ্রামে নানা আইয়ার আলীর বাড়িতে থেকে তিনি লেখাপড়া করতেন।

আইয়ার আলী ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, "নয়ন মণিরামপুরের বাসুদেবপুর বাজারে শিক্ষক ইব্রাহিম হোসেনের কাছে প্রাইভেট পড়তো। আজ সকাল ছয়টার দিকে প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশে সে বাড়ি থেকে বের হয়। এর ঘণ্টাখানেক পরে পলাশী মসজিদের পাশে তার লাশ পড়ে থাকার খবর পাওয়া যায়।"

এসআই মো. সালাহউদ্দিন বলেন, "নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। লাশের কপালের বাম পাশে রক্তাক্ত জখম এবং গলায় কালশিটে জখমের চিহ্ন রয়েছে। মাথায় আঘাত করার পর শ্বাসরোধে তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। এই ঘটনায় মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে।"