• রবিবার, এপ্রিল ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৪ দুপুর

ঝিনাইদহে তিন বছরের শিশুকে কুপিয়ে হত্যা

  • প্রকাশিত ০৯:২৮ রাত মার্চ ১৭, ২০২০
ঝিনাইদহ

হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত ব্যক্তির স্থায়ী ঠিকানা সম্পর্কে কেউ কিছু জানাতে পারেনি

বাড়ি মালিকের তিন বছরের শিশু কন্যাকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক ভাড়াটিয়ার বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন দুলাল নামের ওই ভাড়াটিয়া।

মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) বিকেল ৫টার দিকে কোটচাঁদপুর রেলস্টেশন পাড়ায় ঘটনাটি ঘটেছে। নিহত শিশু জান্নাতুল ফেরদৌসের বাবার নাম টুকু।

ঢাকা ট্রিবিউনকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন কোটচাঁদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত ইমরান আলম।

নিহত শিশুর ভাই ইউসুফ জানান, বিকেল ৪টার পর বাড়িতে ফেরেন তিনি। কিছুক্ষণ পরে জান্নাতুলকে রক্তাক্ত অবস্থায় ভাড়াটিয়া দুলালের ঘরের মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখেন তাদের মা খায়রুন নেছা। মায়ের চিৎকারে ঘর থেকে ছুটে এসে প্রতিবেশীদের সহায়তায় ছোট বোনকে হাসপাতালে নিয়ে যান তিনি। জরুরি বিভাগে নিয়ে যেতে না যেতেই তার মৃত্যু হয়।

নিহত শিশুটির মায়ের অভিযোগ, ভাড়াটিয়া দুলাল তার মেয়েকে হত্যা করে পালিয়ে গেছে। তবে হত্যাকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে কিছু বলতে পারেননি তিনি।

কোটচাঁদপুর থানার ওসি মাহবুবুল আলম বলেন, আমি হাসপাতালে গিয়ে শিশুটির মরদেহ দেখে এসেছি। এখন ঘটনাস্থলে যাচ্ছি।

এদিকে, অভিযুক্ত ওই ভাড়াটিয়ার স্থায়ী ঠিকানা সম্পর্কে কেউ কিছু জানাতে পারেনি। তিনি পুরনো কাপড়ের ব্যবসা করতেন বলে জানা গেছে। তিন মাস আগে তিনি ওই বাসায় ভাড়াটিয়া হিসেবে ওঠেন।