• মঙ্গলবার, মার্চ ৩১, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:২৭ দুপুর

মাইকিং করে করোনার 'টিকা' বিক্রি, অতঃপর গলায় জুতার মালা

  • প্রকাশিত ০৬:৪২ সন্ধ্যা মার্চ ২২, ২০২০
জুতার মালা
হেপাটাইটিস-বি টিকা করোনাভাইরাসের টিকা বলে বিক্রি করায় ২২ মার্চ দুই যুবককে গণপিটুনী দিয়ে জুতার মালা পরিয়ে দেয় এলাকাবাসী। ঢাকা ট্রিবিউন

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের কোবাগা হরি মন্দিরের সামনে এ ঘটনা ঘটে

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলায় হেপাটাইটিস-বি টিকা করোনাভাইরাসের টিকা বলে বিক্রি করায় দুই যুবককে গণপিটুনী দিয়ে জুতার মালা পরিয়ে দিয়েছে এলাকাবাসী। রবিবার (২২ মার্চ) সকালে উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের কোবাগা হরি মন্দিরের সামনে এ ঘটনা ঘটে।  

গণপিটুনীর শিকার দুজন হলেন-যাত্রাবাড়ির মীর হাজারিবাগের মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে আফজাল হোসেন ও পটুয়াখালীর গোমরাবাড়ির মৃত আব্দুল লতিফ খানের ছেলে বাবুল ইসলাম।

সোনারগাও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেন। 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকালে ওই দুই যুবক পরিকল্পিতভাবে উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের কোবাগা হরি মন্দিরে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়া হবে বলে মাইকিং করেন। পরে লোকজনের কাছ থেকে হেপাটাইটিস-বি'র টিকাকে করোনাভাইরাসের টিকা বলে জনপ্রতি ২০০-৫০০ পর্যন্ত টাকা নিতে শুরু করেন। বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হলে এলাকাবাসী তাদের দু‘জনকে আটক করে মারধর করে ও জুতার মালা গলায় পরিয়ে দেয়। পরে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সোনারগাঁ থানার ওসি  মো. মনিরুজ্জামান জানান, এলাকাবাসীর অভিযোগে তালতলা ফাঁড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক ঘটনাস্থলে যান। ঘটনার সত্যতা পেলেও ওই দুই যুবককে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

এ  বিষয়ে তালতলা ফাঁড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক মো. আহসানউল্লাহ জানান, "হেপাটাইটিস-বি টিকাকে করোনাভাইরাসের টিকা বলে করে বিক্রির অভিযোগে দুই তরুণ গণপিটুনীর বিষয়টি আমরা এলাকাবাসীর মাধ্যমে জানতে পারি। কিন্তু ঘটনাস্থলে গিয়ে আমরা দেখি, তাদের স্থানীয় এক মেম্বারের জিম্মিতে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।"