• সোমবার, মে ২৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:৪৮ বিকেল

করোনাভাইরাস: ভারতের অভিজ্ঞতা বাংলাদেশকে কী বার্তা দেয়?

  • প্রকাশিত ০৪:৫৭ বিকেল এপ্রিল ৪, ২০২০
কুমিল্লা-করোনাভাইরাস
ফাইল ছবি। ঢাকা ট্রিবিউন

১৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম কোভিড-১৯’এ মৃত্যুর পর থেকে চারসপ্তাহের মধ্যে মাত্র আটজনের মৃত্যু অবশ্যই অত্যন্ত আশাবাদী হওয়ার মত বিষয়। তবে, আমাদের এই সঙ্কট পার হতে আরও বহুপথ পাড়ি দিতে হবে

প্রতিবেশী দেশ ভারতের করোনাভাইরাস সৃষ্ট কোভিড-১৯ মোকাবেলায় নেওয়া পদক্ষেপগুলো আগামী সপ্তাহ ও মাসগুলোতে বাংলাদেশের জন্য একটি দিকনির্দেশনা হিসেবে কাজ করতে পারে। দেশটিতে সন্দেহজনক মানুষদের শরীরের নমুনা পরীক্ষার বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নেওয়া হয়েছে।

ভারতে গত ৩০ জানুয়ারি প্রথম কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় যেখানে বাংলাদেশে প্রথম রোগী শনাক্তের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায় গত ৮ মার্চ। অর্থাৎ, বাংলাদেশের চেয়ে পাঁচসপ্তাহ আগেই ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটে।

সেক্ষেত্রে লক্ষ্যণীয় হলো, কোথায় ও কীভাবে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে দু’দেশের পথ মিলে গেছে এবং কীভাবে ও কোথায় পথগুলো আলাদা হয়েছে।  

৮ মার্চ প্রথম আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর ২৮দিন পর বাংলাদেশে সর্বমোট ২,৮৫৩ জন সন্দেহজনক রোগীর শরীরের নমুনা পরীক্ষা করে এপর্যন্ত মোট ৭০জন রোগী শনাক্ত ও ৮জনের মৃত হয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে।   

অন্যদিকে, প্রথম শনাক্তের ২৮দিন পর ভারতে মাত্র ৩জন আক্রান্ত পাওয়া যায় এবং তখনও পর্যন্ত দেশটিতে একজনেরও মৃত্যু নিবন্ধিত হয়নি। ভারত যেহেতু অধিকহারে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা শুরু করেছে তাই সেখানে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।  

প্রথম আক্রান্ত শনাক্ত হওয়ার ছয়সপ্তাহ পর গত ১৫ মার্চ ভারতে ৯৯জন শনাক্ত ও মাত্র ২জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়।

তবে, ৪ এপ্রিল অর্থাৎ দুইমাসের মধ্যেই ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে গিয়ে ২,৯০২ জনে দাঁড়ায় এবং ৬৮জনের মৃত্যু হয়। 

ভারতে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত একজনের মৃত্যু হয় ১২ মার্চ। পরের দুইসপ্তাহের মধ্যে গত ২৬ মার্চ এ্ই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ২০জনে। আর মাত্র একসপ্তাহ পরেই এটি ৭২জনে দিয়ে পৌঁছায়। ১২ মার্চে যেখানে মোট ৭৪জন আক্রান্ত ছিলো আজ তা বেড়ে ২,৯০২।

নমুনা পরীক্ষা

গত ২৯ ভারত মোট ৩৫,০০০ নমুনা পরীক্ষা করেছিলো এবং আজ সেটির সংখ্যা দ্বিগুণ বেড়ে ৭০,০০০। অন্যদিকে, বাংলাদেশে ৩ এপ্রিল পর্যন্ত ২,১১৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এরমধ্যে শুধু ৩ এপ্রিলই ৫১৩টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে, যা একদিনে সর্বোচ্চ সংখ্যা। 

যদিও বাংলাদেশ এখনও নমুনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে বিশ্বে অন্যতম সর্বনিম্ন অবস্থানে রয়েছে। এমনকী, মোট জনসংখ্যার সাথে মিল রেখে, এটি পরিষ্কারভাবেই বলা যায় যে, বাংলাদেশ ভারতের তুলনায় নমুনা পরীক্ষায় পিছিয়ে রয়েছে। 

অবশ্য, সরকারি হিসেবে আক্রান্তের যে সংখ্যাটি বলা হচ্ছে সেটি জনসংখ্যার বিচারে অন্যন্ত কম। তবে, দেশের সবচেয়ে আশাবাদী মানুষটিও একমত হবেন যে এই সংখ্যাটির তুলনায় অনেক বেশি আক্রান্ত মানুষ আসলে আছেন। তবে তারা পরীক্ষার অভাবে শনাক্ত হননি। 

করণীয়

যদি প্রতিবেশী ভারতই উদাহরণ হয়, তবে আমাদের আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে কোভিড-১৯ মোকাবেলায় যথেষ্ট তৎপর হতে হবে। যদিও এই সঙ্কট মোকাবেলায় সাম্প্রতিক পদক্ষেপগুলো অবশ্যই বেশ লাভজনক প্রভাব ফেলেছে।

১৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম কোভিড-১৯’এ মৃত্যুর পর থেকে চারসপ্তাহের মধ্যে মাত্র আটজনের মৃত্যু অবশ্যই অত্যন্ত আশাবাদী হওয়ার মত বিষয়। তবে, আমাদের এই সঙ্কট পার হতে আরও বহুপথ পাড়ি দিতে হবে। 

বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত প্রথম আক্রান্ত শনাক্তের পর প্রথম চারসপ্তাহ পার হয়েছে। তবে প্রতিবেশী ভারতের পরিস্থিতি থেকে যদি অভিজ্ঞতা নেওয়া যায়, তবে এটি স্বীকার করতেই হবে যে আগামী তিনসপ্তাহের পরিস্থিতি সত্যিই আরও জটিলতার দিকে এগুচ্ছে।     

58
50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail