• বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২২, ২০২১
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:৫৫ বিকেল

১৯ বছরে সুন্দরবনে ৩১টি অগ্নিকাণ্ড, পুড়েছে ৯০ একর

  • প্রকাশিত ০৫:৫৬ সন্ধ্যা ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২১
সুন্দরবন
গত ৮ ফেব্রুয়ারি সুন্দরবনে সর্বশেষ আগুন লাগে। ঢাকা ট্রিবিউন

রেড অ্যালার্ট চলাকালে সুন্দরবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা বন বিভাগকে অস্বস্তিতে ফেলেছে


চোরা শিকারি দমনে সুন্দরবন জুড়ে চলছে রেড এলার্ট। বন বিভাগের সর্বত্র কঠোর সতর্কতা রয়েছে। এমন পরিস্থিতির মধ্যে গত ৮ ফেব্রুয়ারি পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর টহল ফাঁড়ির কাছে ২৭ নম্বর কম্পার্টমেন্টের বনে আগুন লাগে। এতে প্রায় ২০০ বর্গ মিটার (প্রায় ৪ শতক) বনভূমি পুড়ে যায়। 

বন বিভাগ বলছে, বন কর্মীদের সতর্কতার কারণে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা পেয়েছে সুন্দরবন। বন বিভাগ প্রথমে স্থানীয়দের সহায়তায় আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। পরে শরণখোলা ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট সেখানে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। রেড অ্যালার্টের মধ্যে সুন্দরবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় চাপে পড়েছে বন বিভাগ। অপরদিকে স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে দেখা দিয়েছে আতঙ্ক।

বন বিভাগ সূত্রে জানা যায়, গত ১৯ বছরে সুন্দরবনে ৩১ বার আগুন লাগে। এসব আগুনে পুড়ে যায় প্রায় ৯০ একর বনভূমি। সর্বশেষ গত ৮ ফেব্রুয়ারি আগুনে পুড়েছে দানসাগর টহল ফাঁড়ি এলাকার প্রায় ৪ শতক বনভূমি। এর আগে ২০১৭ সালের ২৬ মে পূর্ব সুন্দরবনে চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশনের নাংলী ফরেস্ট ক্যাম্পের আওতাধীন আবদুল্লাহর ছিলায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রায় পাঁচ একর বনভূমির ছোট গাছপালা, লতাগুল্ম পুড়ে ছাই হয়ে যায়।


আরও পড়ুন - বন্যপ্রাণী হত্যা ও পাচার: সুন্দরবনে ‘রেড অ্যালার্ট’


ধানসাগর স্টেশন কর্মকর্তা (এসও) মো. ফরিদুল ইসলাম জানান, আগুনের খবর পেয়ে দ্রুত গ্রামবাসী কলস বালতি নিয়ে আগুন নেভানোর জন্য ছুটে যান। এরপর শরণখোলা ফায়ার স্টেশনের ২০ সদস্যের একটি দল গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে ভোলা নদীতে পাইপ বসিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করে।

স্থানীয় মো. কামাল হোসেন তালুকদার ও ইউপি সদস্য হুমায়ুন করিম সুমন জানান, ৮ ফেব্রুয়ারি সকালে  গোপনে ৫-৬ জন অজ্ঞাত যুবক বনের ওই এলাকায় প্রবেশ করে। হয়তো তারা বনের মধ্যে বসে বিড়ি-সিগারেট খেয়েছে। সিগারেটের অবশিষ্ট অংশ বনে ছুঁড়ে ফেলায় সেখান থেকেই আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। এর পূর্বে বনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় বন সংলগ্ন এলাকার অনেকেই মামলার শিকার হয়েছে। প্রায় ৪ বছর পর আবার বনে আগুন লাগার ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। বনে রেড  অ্যালার্টের মধ্যে এ ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন সতর্ক রয়েছেন।

চাঁদপাই রেঞ্জের সহকারি বনসংরক্ষণ (এসিএফ) মো. এনামুল হক জানান, বন বিভাগের চোখ ফাঁকি দিয়ে গোপনে কয়েকটি ছেলে বনে প্রবেশ করে। হয়তো তারা বিড়ি-সিগারেট খেয়ে অবশিষ্ট অংশ বনে ফেলে। সেখান থেকে এই আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে। বনে অবৈধ প্রবেশ ঠেকাতে সংশ্লিষ্ট অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের কঠোর নিদের্শনা দেওয়া হয়েছে। 


আরও পড়ুন - সুন্দরবনে আগুন


শরণখোলা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মকর্তা কর্মকর্তা এম আব্দুল ওদুদ জানান, রেড অ্যালার্ট চলাকালে সুন্দরবনে আগুন লাগার সঠিক কারণ জানা যায়নি। 

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেন বলেন, বন বিভাগের প্রচষ্টোয় সুন্দরবন বড় ধরনের ক্ষতি হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। পরবর্তীতে যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘরে সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট বন কর্মকর্তা-কর্মচারিদের কঠোর নজরদারি রাখতে বলা হয়েছে। আগুনের এ ঘটনায় চাঁদপাই রেঞ্জের সহকারি বন সংরক্ষক (এসিএফ) মো. এনামুল হককে প্রধান করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন চাঁদপাই রেঞ্জের স্টেশন কর্মকর্তা অসিত কুমার রায় ও লন চাঁদপাই রেঞ্জের ফরেস্ট রেঞ্জার ওবায়দুর রহমান। তদন্ত কমিটিকে ৭ কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।


আরও পড়ুন - বাঘের সংখ্যা দ্বিগুণ করতে বাংলাদেশ কি ব্যর্থ হতে যাচ্ছে?


আরও পড়ুন - বিশ্ব বাঘ দিবস: ফাঁদে পড়ে মরছে বাঘ?


আরও পড়ুন - বিপন্ন হাতি: কক্সবাজারে দুই বছরে ১৩টি বন্যহাতি ‘হত্যা’

50
Facebook 50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail