• সোমবার, আগস্ট ০২, ২০২১
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:১৮ সন্ধ্যা

করোনাভাইরাস নিয়ে পুলিশের গান, মিউজিক ভিডিওতে আলোড়িত ফেসবুক

  • প্রকাশিত ০৯:০০ রাত এপ্রিল ১৬, ২০২১
করোনা-পুলিশ
গানটি গাওয়ার পাশাপাশি পুলিশ সদস্যরা নিজেরাই অভিনয় করেছেন। ভিডিও থেকে স্ক্রিনশট

গানটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করার পর ভাইরাল হয়েছে। ইতোমধ্যে ৫ লাখেরও বেশি মানুষ গানটি দেখেছেন এবং শেয়ার হয়েছে ১৩ হাজারের বেশি

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে সংক্রমণের মাত্রা ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে দেশব্যাপী লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। এমন পরিস্থতিতে মানুষকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে বাঁচাতে সচেতনতামূলক গান গেয়ে তোলপাড় সৃষ্টি করেছেন গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা। 

গানটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করার পর ভাইরাল হয়েছে। ইতোমধ্যে ৫ লাখেরও বেশি মানুষ গানটি দেখেছেন এবং শেয়ার হয়েছে ১৩ হাজারের বেশি।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকা ট্রিবিউনকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাতকারে ওসি মাসুদ রানা জানান, এবার করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঢেউ অতীতের সকল রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। প্রতিদিনই মারা যাচ্ছে প্রায় শত মানুষ। আক্রান্ত হচ্ছে ৭ থেকে ৮ হাজার। এমনি বাস্তবতায় সরকার সর্বাত্মক কঠোর লকডাউন ঘোষণা করেছে। অথচ আমরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি না, মাস্ক ব্যবহার করি না। শুধু প্রচারণা আর আইনের আওতায় এনে জনগনকে সচেতন করা যাবে না। তাই মানুষকে ঘরে থাকতে হবে। এ জন্য বিকল্প ব্যবস্থা নেবার কথা আমরা ভাবলাম। 

তিনি বলেন, “বিষয়টি নিয়ে থানার ওসি তদন্ত মোস্তাফিজার রহমানসহ কর্মীদের সাথে কথা বললাম। আমরা সিদ্ধান্ত গান গেয়ে জনগনকে সচেতন করব। এরপর ওসি তদন্ত মোস্তাফিজার রহমান করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনামূলক একটি গান লেখেন। আমি নিজেই সুর প্রদান করি।”

ওসি বলেন, “থানার মধ্যেই কয়েকদফা রিহার্সেল দেওয়া হয়। গানে অংশ নেন সাদুল্লাপুর থানার পুলিশ কর্মকর্তাসহ নারী সদস্যরাও। নিজেরাই গানটি শুট করে আমরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করি। এ ছাড়াও নিজেরাই সাদুল্লাপুর থানা সদরসহ বিভিন্ন এলাকায় ওই গান পরিবেশন করে জনগনকে সচেতন করার চেষ্টা করি।”

মাসুদ রানা জানান ছাত্রবস্থায় কলেজে গান করতেন মাঝে মাঝে, ওই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছেন তিনি। 

গান গেয়ে অভাবনীয় সাড়া পেয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের গানে মাস্ক ব্যবহার, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, লকডাউন চলাকালে বাসা থেকে বের না হবার আহবান জানানো হয়। এতে সাদুল্লাপুর থানাসহ গাইবান্ধা জেলায় ব্যাপক সাড়া পড়ে যায়। আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ায় সারাদেশ থেকে অসংখ্য শুভকামনা ভালোবাসা-অনুপ্রেরণাও পাচ্ছি। তবে গান গেয়ে যে মানুষকে সচেতন করা যায়, আমাদের ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা তার একটা উদাহরণ।”

এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমাদের গানে একটু হলেও মানুষের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি হয়, তা আমাদের ভবিষ্যতের পথচলায় পাথেয় হয়ে থাকবে।

দুই ছেলে-মেয়ের জনক মাসুদ রানার বাড়ি রংপুর নগরীর কামারপাড়া মহল্লায়। তিনি বলেন, “আসুন আমরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি। অপ্রয়োজনে বাসা থেকে বের না হই। অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি।মানুষের প্রতি এটাই আমার মেসেজ।”

 

50
Facebook 50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail