Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ওবায়দুল: মোদীর সফর নিয়ে বিক্ষোভে সরকার বিব্রত নয়

‘যদিও বাংলাদেশের কয়েকটি রাজনৈতিক দল দিল্লির ঘটনাকে ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে দেখছে, তবে ভারতের পররাষ্ট্রসচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা পরিষ্কার করে জানিয়েছেন এটি ধর্মীয় কোনও বিষয় নয়’

আপডেট : ০২ মার্চ ২০২০, ০৫:৩৬ পিএম

মুজিববর্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফর নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে হওয়া বিক্ষোভের কারণে সরকার বিব্রত নয় বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (২ মার্চ) দুপুরে সচিবালয়ে সেতু মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

কয়েকটি রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে ১৭ মার্চ মুজিববর্ষ উদযাপনে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সফর নিয়ে আপত্তি তোলা হয়েছে এবং একইসাথে এই সফর প্রতিহত করার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে। এবিষয়ে সরকারের দিক থেকে কী ভাবা হচ্ছে, জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, “বাংলাদেশের মানুষ খুবই বন্ধুত্বপূর্ণ। মোদীর সফরকে কেন্দ্র করে কোনও সংঘাতের ঘটনা ঘটেনি। যাইহোক, বাংলাদেশ সরকার এই বিক্ষোভ নিয়ে বিব্রত নয়।”

তিনি বলেন, “মুজিববর্ষ ঘিরে আমরা একাধিক অনুষ্ঠান আয়োজন করতে চলেছি। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ভারত অনেক বড় অবদান রেখেছে।”

ভারতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) নিয়ে দেশটিতে চরম অস্থিরতা চলছে। এরমধ্যে গত কয়েকদিনে দেশটির রাজধানী দিল্লিতে আইনটির পক্ষ ও বিপক্ষীয়দের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ৪৬ জনের নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। নিহতদের বেশিরভাগই মুসলিম হওয়ায় বাংলাদেশের কয়েকটি রাজনৈতিকদল মুজিববর্ষের আয়োজনে মোদীর সফর নিয়ে প্রশ্ন তোলে ও তা প্রতিহত করার ঘোষণা দেয়।        

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, “যদিও বাংলাদেশের কয়েকটি রাজনৈতিক দল দিল্লির ঘটনাকে ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে দেখছে, তবে ভারতের পররাষ্ট্রসচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা পরিষ্কার করে জানিয়েছেন এটি ধর্মীয় কোনও বিষয় নয়।”

সোমবার (২ মার্চ) ভারতের চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা (এনআরসি) ও সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) কোনও প্রভাব বাংলাদেশে পড়বে না বলে জানিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্রসচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা।

প্রসঙ্গত, সোমবার সকালে বাংলাদেশ সফরে আসেন ভারতের পররাষ্ট্রসচিব শ্রিংলা। সেসময় তাকে স্বাগত জানান বাংলাদেশের পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন।

About

Popular Links