Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে এখনও ফেরি চলাচলে সংকট

দক্ষিণবঙ্গের প্রবেশদ্বার মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে চারটি রো রো ফেরি এখনও চলতে পারছে না।

আপডেট : ১৮ আগস্ট ২০১৮, ০১:০৬ পিএম

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে নাব্য সংকট কিছুটা কাটিয়ে এখন ১৩ টি ফেরি চলাচল করছে। কিন্তু, চারটি রো রো ফেরি এখনো চলতে পারছে না। ঘাট এলাকায় এখনো দেড় থেকে দুইশত গাড়ি পারের অপেক্ষায় আছে।

শনিবার(১৮ আগষ্ট) সকাল থেকেই নৌরুটে ১৩টি ফেরি চলাচল করছে। কে-টাইপ, মাঝারি ফেরির সাথে ডাম্প ফেরি চলাচল করছে নৌরুটে। 

বিআইডাব্লিউটিসি'র শিমুলিয়া ঘাটের উপমহাব্যবস্থাপক শাহ মোঃ খালেদ নেওয়াজ জানান, ‘নৌরুটে বর্তমানে ১৩টি ফেরি চলাচল করছে। নাব্য সংকটের কারনে চ্যানেলের মুখে ডাম্পফেরিগুলো চালাতে সমস্যা হচ্ছে। রো রো ফেরি চলছে না’। 

তিনি আরও জানান, ‘গত ২৪ ঘন্টায় দুই পাড় মিলিয়ে ৬৯টি যাত্রীবাহী বাস, ২৪৮ টি ট্রাকসহ মোট ১ হাজার ৯৪০ টি যানবাহন পার করা হয়েছে। ঘাটের বাইরে ৫০টির মত ট্রাক আছে যেগুলো আমরা এখন পার করব না। এছাড়া, খালি গরু বহন করার কাজে ব্যবহৃত ট্রাকগুলো আমরা পার করে দিচ্ছি’। 

মাওয়া পুলিশ ফাঁড়ির ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মোঃ সিদ্দিকুর রহমান জানান, ‘ঘাট এলাকায় বর্তমানে ২০০ গাড়ি পারের অপেক্ষায় আছে। এর মধ্যে পণ্যবাহী ট্রাক ও যাত্রীবাহী ছোট গাড়ির সংখ্যাই বেশি আছে। তবে গাড়ির যেই সংখ্যা তা শিমুলিয়া ঘাটের জন্য স্বাভাবিক চাপ’। 

এদিকে, ঘাটে ফেরি চলাচলে বিঘ্নতার কারনে বেশিরভাগ যাত্রীবাহী বাসগুলো ঘাটে যাত্রীদের নামিয়ে পুনরায় ঢাকার উদ্দেশে ফিরে যাচ্ছে। যাত্রীরা বিকল্প পথে লঞ্চ ও স্প্রীডবোটে নদী পার হচ্ছে। 

বিআইডাব্লিউটিএ'র শিমুলিয়া ঘাট পরিদর্শক মোঃ সোলেমান জানান, ‘সকাল থেকেই যাত্রীদের চাপ লক্ষ্য করা গেছে লঞ্চ ঘাট এলাকায়। ৮৭টি লঞ্চের মাধ্যমে যাত্রীরা পারাপার হচ্ছেন। তবে চাপ থাকলেও যাত্রীরা ভোগান্তি ছাড়াই যাতায়াত করছে’। 


About

Popular Links