Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

কুড়িগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার: আরিফুলকে ভালো মানুষ হিসেবে চিনি

শুক্রবার দিবাগত রাতে নিজ বাসা থেকে ঢাকা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত

আপডেট : ১৪ মার্চ ২০২০, ০৯:২৫ পিএম

ঢাকা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামের নামে সদর থানায় কোনো সাধারণ ডায়েরি (জিডি), অভিযোগ ও মামলা নেই বলে জানিয়েছেন কুড়িগ্রাম সদর সার্কেলের দায়িত্বে থাকা সহকারী পুলিশ সুপার উৎপল রায়। তিনি বলেন, "ব্যক্তিগতভাবে তাকে আমরা একজন ভালো মানুষ হিসেবে চিনি ও জানি।"

শনিবার (১৪ মার্চ) ঢাকা ট্রিবিউনকে এসব কথা বলেন সহকারী পুলিশ সুপার উৎপল রায়। 

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, "কুড়িগ্রাম সদর থানায় আরিফুল ইসলামের বিরুদ্ধে কোনো জিডি, অভিযোগ কিংবা কোনো মামলা নেই। ব্যক্তিগতভাবে তাকে আমরা একজন ভালো মানুষ হিসেবে চিনি ও জানি। কিন্তু কেন এমন হয়েছে, তা আমরা বুঝতেই পারছি না।"


আরও পড়ুন-ঢাকা ট্রিবিউনের সাংবাদিককে চোখ বেঁধে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের অভিযোগ


এক প্রশ্নের জবাবে উৎপল রায় বলেন, "ডিসি অফিস মোবাইল টিম বা টাস্কফোর্স করার জন্য চিঠি থাকে। সেই আলোকে আমরা নিয়মিত পুলিশ দিয়ে থাকি। কিন্তু এই ঘটনাকে সম্পর্কে আমাদের সিনিয়র কেউই কোনো কিছু জানতেন না। আপনারা ভালো করে খোঁজখবর নিয়ে দেখতে পারেন।"   

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, "আরিফুল ইসলামের মোবাইল কল পেয়ে আমরা দ্রুত তার বাড়িতে ছুটে যাই। আমরা গিয়ে দেখি বাড়ির গেট ভেঙে ঢুকে তাকে তুলে নিয়ে গেছে। তাকে ট্রেস করার জন্য চারদিকে পুলিশের মোবাইল টিমকে বলা হয়। রংপুর র‍্যাব-১৩ ও লালমনিরহাট পুলিশকে অবহিত করা হয়। কারণ, বিষয়টি আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত ছিল। আমাদের আশঙ্কাও ছিল। খুঁজতে খুঁজতে গিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সামনে দু'টি গাড়ি দেখতে পেয়ে আমরা সেখানে যাই। সেখানে তিনজন ম্যাজিস্ট্রেটের সঙ্গে দেখা হয়। কথা বলে জানতে পারি আরিফুল ইসলামকে হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। অপরাধ কী জানতে চাইলে তারা বলেন, ১৫০ গ্রাম গাঁজা ও অর্ধেক বোতল মদ পাওয়া গেছে। পরে আমরা সেখান থেকে চলে যাই।"


আরও পড়ুন-কাবিখা’র টাকায় পুকুর সংস্কার করে ডিসি’র নামে নামকরণ!


শুক্রবার (১৩ মার্চ) দিবাগত রাতে নিজ বাসা থেকে আরিফুল ইসলামকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে তাকে এক বছরের জেল ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় তার বাসা থেকে আধা বোতল মদ ও ১৫০ গ্রাম গাঁজা পাওয়া গেছে বলে অভিযোগ তোলা হয়। যদিও আরিফ অধূমপায়ী বলে জানিয়েছে তার পরিবার।

প্রসঙ্গত, কুড়িগ্রামের ডিসি সুলতানা পারভীনের বিরুদ্ধে নিজ নামে পুকুর খননের অভিযোগ ওঠায় সে বিষয়ে একটি প্রতিবেদন লেখেন আরিফুল। সম্প্রতি জেলা প্রশাসনের নিয়োগ অনিয়ম নিয়েও প্রতিবেদন করছিলেন তিনি।


আরও পড়ুন-ঢাকা ট্রিবিউন সাংবাদিককে রাতের আঁধারে তুলে নিয়ে এক বছরের জেল



About

Popular Links