Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নওগাঁয় কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২

নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে অস্ত্র ও মাদক উদ্ধারে গেলে এই 'বন্দুকযুদ্ধের' ঘটনা দুটি ঘটে বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার

আপডেট : ০২ এপ্রিল ২০২০, ০৯:৫৭ এএম

নওগাঁর আত্রাই ও পত্নীতলায় পুলিশের সঙ্গে পৃথক দুটি কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহতরা দুষ্কৃতিকারী ও মাদক ব্যাবসয়ী ছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় আগ্নেয়াস্ত্র ও মাদক উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার (০১ এপ্রিল) দিবাগত রাতে কথিত এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা দুটি ঘটে বলে ঢাকা ট্রিবিউনকে নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান। তিনি বলেন, পুলিশ নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে অস্ত্র ও মাদক উদ্ধারে গেলে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা দুটি ঘটে।

আত্রাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মসলিম উদ্দিন বলেন, রাত আড়াইটার দিকে আত্রাই উপজেলার তিলাবুদুরী এলাকায় অস্ত্র উদ্ধারে গেলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুষ্কৃতিকারীরা গুলি ছুড়তে শুরু করে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে মিনহাজুল ওরফে মিন্টু ওরফে শিকদার (৪০) নামে এক দুষ্কৃতিকারী গুলিবিদ্ধ হয়। ঘটনাস্থলে থাকা অন্য দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। আহতাবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরও বলেন, নিহত মিনহাজুলের বাড়ি উপজেলার ভর তেঁতুলিয়া গ্রামে। সে নিষিদ্ধ ঘোষিত সর্বহারা গ্রুপের সক্রিয় সদস্য ছিল। তার বিরুদ্ধে একাধিক হত্যা মামলা চলমান। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, গুলি ও হাতবোমা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এদিকে, পত্নীতলা থানার ওসি পরিমল চক্রবর্তী জানান, বুধবার দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার দীবর এলাকায় মাদক উদ্ধার করতে গেলে পুলিশের সঙ্গে মাদক চোরাকারবারীদের গুলি বিনিময় হয়। গোলাগুলিতে আহত হয় জাহিদুল (৩৮) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী। ঘটনাস্থলে থাকা অন্য মাদক কারবারীরা পালিয়ে যায়।

ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ জাহিদুলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি শ্যুটারগান, বুলেট, হাঁসুয়া ও ৯৮৫টি ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত জাহিদুলের বাড়ি পত্নীতলা উপজেলার বালুঘা গ্রামে। সে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।


About

Popular Links