Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

পিরোজপুরে মানবিক সহায়তা কর্মসূচির চাল আত্মসাৎ, দুদকের তদন্ত

চাল চুরি করে লুকিয়ে রাখা হয় স্থানীয় এক ভ্যানচালকের বাড়িতে

আপডেট : ১৭ এপ্রিল ২০২০, ০৯:৪৯ এএম

করোনাভাইরাস সঙ্কটে পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলায় কর্মহীন হয়ে পড়া স্থানীয় শ্রমজীবী ও নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে বিতরণের জন্য বরাদ্দকৃত সরকারের মানবিক সহায়তা কর্মসূচির (জিআর) চাল আত্মসাতের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি তদন্তে  মাঠে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

জেলা দুদকের একটি সূত্র ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার ইকড়ি ইউনিয়ন পরিষদের ১ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য মো. মওদুদ আহম্মেদ লাভলু, ২ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য মো. রফিকুল ইসলাম, ৩ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য শিশির হালদার ও স্থানীয় প্রভাবশালী খোকন সিকদার মিলে সোমবার (১৩ এপ্রিল) ছয় বস্তা জিআর চাল (প্রায় ৬০০ কেজি) আত্মসাৎ করেন।

চালগুলো লুকিয়ে রাখার জন্য ওইদিন বিকেলে পাঠিয়ে দেওয়া হয় স্থানীয় এক ভ্যানচালকের বাড়িতে। কিন্তু বিষয়টি স্থানীয়রা টের পেয়ে যান।

স্থানীয় সূত্র জানায়, চাল চুরির বিষয়টি ধামাচাপা দিতে ইকড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবিরের নেতৃত্বে খোকন সিকদার, শিশির, লাভলু মেম্বারসহ কয়েকজন স্থানীয় প্রভাবশালী সোমবার সন্ধ্যায় গোপন বৈঠক করেন কবির সিকদারের (আত্মসাতে জড়িত খোকন সিকদারের ভাই) বাড়িতে। প্রশাসনের চোখ এড়াতে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ওই ভ্যানচালকের বাড়ি থেকে চাল সরিয়ে ফেলা হয়।

এদিকে, স্থানীয়দের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পারেন পিরোজপুর জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন। ঘটনাটি তদন্ত করতে ওইদিনই একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে ঘটনাস্থলে পাঠান তিনি।

ওই ভ্যানচালকের মা গণমাধ্যমকর্মীদের জানান, তার ছেলে ভ্যানে করে পাঁচ-ছয় বস্তা চাল বাড়িতে নিয়ে এসেছিল। পরে সেগুলো বাড়ি থেকে নিয়ে যাওয়া হয়।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম মাকসুদুর রহমান বলেন, চাল চুরির অভিযোগ তিনি শুনেছেন।

About

Popular Links