Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

করোনাভাইরাস: বাংলাদেশে সুস্থতার হার সর্বনিম্ন

করোনাভাইরাসে সারা বিশ্বে গড় সুস্থতার গড় হার ২৭ শতাংশ

আপডেট : ২২ এপ্রিল ২০২০, ০১:০১ পিএম

করোনাভাইরাসের প্রকোপে সারা বিশ্বের মতোই সংকটময় অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। গতকাল (২১ এপ্রিল) পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্ত হয়েছে ৩ হাজার ৩৮২ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছে মাত্র ৮৭ জন, যা মোট রোগীর ২ দশমিক ৫৭ শতাংশ। পরিসংখ্যান বলছে, এই সুস্থতার হার দক্ষিণ এশিয়া ও ভাইরাসটিতে সর্বাধিক আক্রান্ত দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে কম। 

রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) জানিয়েছে, শেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে ৪৩৪ জন। অপর দিকে, ২৪ ঘণ্টায় পুরোনো রোগীদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছে মাত্র দুইজন। 

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারতে ১৮ হাজার ৯৮৫ আক্রান্তের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছে ৩ হাজার ২৭৩ জন। দেশটিতে সুস্থতার হার ১৭ দশমিক ২৪ শতাংশ। পাকিস্তানে সুস্থতার হার আরও বেশি-২১ দশমিক ৬৭ শতাংশ। দেশটিতে ৯ হাজার ৫৬৫ আক্রান্তের মধ্যে ২ হাজার ৭৩ জন সুস্থ্য হয়ে উঠেছে। 

মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) রাত ১১টা পর্যন্ত ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, করোনাভাইরাসে সারা বিশ্বে গড় সুস্থতার গড় হার ২৭ শতাংশ। 

এদিকে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিকে প্রায় নিয়ন্ত্রণে আনা চীন দাবি করেছেন, কোভিড-১৯ আক্রান্তদের মধ্যে দেশটিতে সুস্থতার হার ৯৩ শতাংশ। দেশটিতে ৮২ হাজার ৭৫৮ রোগীর মধ্যে ৭৭ হাজার ১২৩ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে। করোনায় বিপর্যন্ত আরেক দেশ ইতালির সুস্থতার হার ২৮ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা ঢাকা ট্রিবিউনকে রবিবার সন্ধ্যায় বলেন, করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের পুরোপুরি সুস্থ ঘোষণা করতে কমপক্ষে ২৮ দিন সময় লাগে। যেহেতু বাংলাদেশে ৮ মার্চ থেকে করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্ত হয়েছে। তাই সন্তোষজনক সুস্থতার হার পেতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে।   

এ বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিকার আন্দোলনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক রশিদ ই মাহবুব ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, বাংলাদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রথম দিকে নমুনা পরীক্ষার হার কম ছিলো। যার ফলে শুধু জটিলভাবে আক্রান্ত রোগীদের শনাক্ত করা হয়। সুস্থতার হার কম হওয়ার এটি একটি কারণ। তবে পরে নমুনা পরীক্ষার হার বাড়ানো হয়েছে। ফলে আগামী দিনগুলোতে সুস্থতার হার বৃদ্ধির আশা করা যাচ্ছে।

About

Popular Links