Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রাজধানীতে ভাড়াটিয়াকে বাড়ি ছাড়তে বাধ্য করায় মালিক কারাগারে

এক মাসের ভাড়া দিতে ব্যর্থ হওয়ায় গত ১৮ এপ্রিল রাতে বাড়ির মালিক নূর আক্তার শিশুসহ একটি পরিবারকে বাসা ছেড়ে যেতে বাধ্য করেন

আপডেট : ২২ এপ্রিল ২০২০, ১১:১৫ পিএম

রাজধানীতে ভাড়া দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ভাড়াটিয়া একটি পরিবারকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার ঘটনায় বাড়ির মালিককে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

রাজধানীর কলাবাগান এলাকায় অবস্থিত ওই বাড়ির মালিকের নাম নূর আক্তার।

বুধবার (২২ এপ্রিল) ওই নারীর জামিন আবেদন খারিজ করে এ আদেশ দেন ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক মো. আবু সাঈদ।

এর আগে মঙ্গলবার নিজ বাড়ি থেকে নূর আক্তারকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

র‌্যাব-২ এর কম্পানি কমান্ডার (সিপিসি২-) মেজর এইচএম পারভেজ আরেফিন জানান, মঙ্গলবার বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার এ খবর পেয়ে ভাড়াটিয়াকে বাড্ডায় মায়ের বাড়ি থেকে কলাবাগানের ভাড়া বাসায় নিয়ে আসেন। কিন্তু সে সময় বাড়ির মালিক বাসায় ছিলেন না এবং মেইনগেটটিও তালাবদ্ধ ছিল।

তিনি আরও জানান, র‌্যাব সদস্যরা ওই বাড়িওয়ালাকে কল করে তার অবস্থান জানতে চাইলে তিনি সায়েদাবাদে আছেন বলে জানান। পরে বাড়িওয়ালার বিরুদ্ধে কলাবাগান থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ভাড়াটিয়া।


আরও পড়ুন -  ভাড়া না পেয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ায় গ্রেফতার বাড়িওয়ালা


মামলাটিতে জোরপূর্বক ভাড়াটিয়ার ঘরে প্রবেশ করে জীবননাশের হুমকি, গহনা ছিনতাই এবং জোরপূর্বক বাসা থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে।

মামলার তদন্তের পর র‌্যাব-৩ তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারসহ তার আত্মীয়-স্বজনের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় বাড়িওয়ালা নুর আক্তার শম্পাকে ধানমন্ডি থেকে গ্রেফতার করে। পরে তাকে কলাবাগান থানায় হস্তান্তর করা হয়।

পারভেজ আরেফিন বলেন, ভবিষ্যতেও কোনো বাড়িওয়ালা যেন এই ধরনের অমানবিক আচরণ না করেন সে ব্যাপারে আমরা সকলকে অনুরোধ জানাচ্ছি এবং এ ধরনের অন্যায় এর বিরুদ্ধে আমাদের কার্যক্রম চলমান থাকবে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার রাত রাত সাড়ে দশটার দিকে বাড়ি ভাড়া না দিতে পারায় ওই পরিবারটিকে বাড়ি থেকে বের করে দেন ওই বাড়িওয়ালা। এ সময় ভাড়াটিয়ার ছোট মেয়েকে থাপ্পড় দেন ও  গলা চেপে ধরেন এবং ভাড়াটিয়ার জীবননাশের হুমকি দেন বলেও অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

এরপর মধ্যরাতে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ায় দু'মাসের একটি বাচ্চাসহ মোট পাঁচজনের পরিবারটি তাদের মায়ের বাসা বাড্ডায় যান।

About

Popular Links