Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নিম্নবিত্তদের ১০ টাকা দরে চাল দেবে সরকার

আগামী সেপ্টেম্বর মাস থেকেই খাদ্যবান্ধব কর্মসুচির আওতায় নিম্নবিত্ত ও দরিদ্র জনগোষ্ঠির জন্য ১০ টাকা দরে ৩০ কেজি করে চাল দিবে সরকার।

আপডেট : ২৯ আগস্ট ২০১৮, ০৫:১৫ পিএম

বুধবার খাদ্য অধিদফতরে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি সম্পর্কিত মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম। সভায় আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা ও জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, নীতিমালা অনুযায়ী বছরে মার্চ, এপ্রিল, সেপ্টেম্বর, অক্টোবর ও নভেম্বর এই পাঁচ মাস ৫০ লাখ হতদরিদ্র পরিবারকে ১০ টাকা কেজি দরে চাল দেয়া হয় ।

তিনি আরো বলেন, নির্বাচনের আগে এই খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি নিয়ে সরকার কোনো অনিয়ম দেখতে চায় না। কোনো অনিয়ম হলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। কোনো রকমের দুর্নীতি, কোনো রকমের অস্বচ্ছতা সেপ্টেম্বর, অক্টোবর, নভেম্বর- এই তিন মাসের কর্মসূচিতে যাতে ধরা না পরে, উপস্থিত কর্মকর্তাদের এ বিষয়ে হুঁশিয়ার করেন মন্ত্রী।

আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা ও জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী আরো বলেন, আপনারা সবসময় সতর্ক থাকবেন কোথাও যাতে কোনো অনিয়ম পরিলক্ষিত না হয়। কোনো জায়গায় যদি অনিয়ম পাওয়া যায় সাথে সাথে সংশোধনের ব্যবস্হা করবেন।

কামরুল ইসলাম বলেন, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা এই কর্মসূচির তালিকা প্রস্তুতের সঙ্গে জড়িত থাকে। তাদের মধ্যে যাতে রেশারেশি ও প্রতিদ্বন্দ্বিতা না থাকে। অনেক ক্ষেত্রে রেশারেশির কারণে ম্যানিপুলেট করে সংবাদ সরবরাহ করার চেষ্টা করে। সেদিকেও আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে।

তিনি বলেন, এর আগে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় কুড়িগ্রামে পুষ্টি চাল বিতরণ করা হয়েছে। এবার নতুন ৮টি উপজেলায় পুষ্টি চাল দেয়া হবে। এগুলো হচ্ছে ঢাকার কেরানীগঞ্জ, গাজীপুরের কালিগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল, গোপালগঞ্জের মোকছেদপুর, ফরিদপুর সদর, ও বিজয়নগর, বরগুনার বামনা উপজেলায়এবং লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা ক্রমান্বয়ে সব উপজেলায় পুষ্টি চাল সরবরাহের ব্যবস্থা করব। সেই কার্যক্রম আমাদের চলছে। পুষ্টিচালের জন্য মিল চালু হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন ,ভবিষ্যতে পুষ্টি চাল যাতে বাজারে কিনতে পাওয়া যায় আমরা সেই ব্যবস্থাও নিচ্ছি।

সূত্রঃ ইউএনবি


About

Popular Links