Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রসব বেদনায় ‘দিশেহারা’ করোনাভাইরাস রোগী, এগিয়ে এলো পুলিশ

ওই নারী যদি পুলিশের গাড়ির ভেতরে সন্তান প্রসব করে ফেলেন, তার জন্য নারী পুলিশের ব্যবস্থাও করা হয়েছিল।

আপডেট : ১১ মে ২০২০, ০৪:৪২ পিএম

হঠাৎ প্রসব বেদনায় দিশেহারা হয়ে পড়েছিলেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত অন্তঃসত্ত্বা এক নারী। বুঝে উঠতে পারছিলেন না কী করবেন। এমন সময় এগিয়ে আসে পুলিশ। ওই নারীকে ভর্তি করে হাসপাতালে। অবশেষে তার কোল জুড়ে আসে ফুটফুটে এক সন্তান। সোমবার (১১ মে) বিকেলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পুত্র সন্তানের জন্ম দেন তিনি। 

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কিছুদিন আগে ওই নারী এবং তার পরিবার পুলিশের কাছে সহায়তা চায়। সে সময় ওই নারীর শরীরে করোনাভাইরাস সংক্রমণের উপসর্গ থাকায় হাসপাতালে যাওয়ার জন্য কোনো গাড়ি জোগাড় করতে পারেননি তারা। এরপর পুলিশ এগিয়ে এসে ওই নারীকে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তির চেষ্টা করে। তবে কোথাও ভর্তি না নিলে শেষ পর্যন্ত তাকে ঢামেক হাসপাতালে করোনাভাইরাসের টেস্ট করা হয় এবং রিপোর্ট পজিটিভ আসে। 

রাজধানীর বংশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহীন ফকির বলেন, “আমরা গত ৭ মে ওই নারীর করোনাভাইরাস টেস্ট করি। সেদিন চিকিৎসকরা তাকে হাসপাতালে ভর্তি হতে বলেন। তবে তখনো করোনাভাইরাস টেস্টের ফল না আসায় ওই নারী জানতেন না তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। এ কারণে সংক্রমণের ভয়ে হাসপাতালে না থেকে বাসায় আইসোলেশনে চলে যান। এরপর পুলিশ কসাইটুলিতে তার বসায় দিয়ে আসে। ওই দিন চিকিৎসকরা তার ডেলিভারির জন্য ১৬-১৭ তারিখ নির্ধারণ করেন।”  

শাহীন ফকির আরও বলেন, “সোমবার সকালে ওই নারীর প্রসব বেদনা শুরু হয়। কোনো অ্যাম্বুলেন্স না পেয়ে আমাদের দুটি গাড়িতে করে তাকে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে যাই। ওই নারীর জন্য আমরা সবকিছুর ব্যবস্থা করি। তাকে পিপিই পরিয়ে দিই, এমনকি তিনি যদি গাড়ির ভেতরে সন্তান প্রসব করে ফেলেন, তার জন্য নারী পুলিশের ব্যবস্থাও করা হয়েছিল।  শেষ পর্যন্ত হাসপাতালে নরমাল ডেলিভারিতেই তিনি পুত্র সন্তান প্রসব করেন।” 

এদিকে সদ্য পৃথিবীর আলোর মুখ দেখা নবজাতক সুস্থ থাকলেও, মা বেশ অসুস্থ বলে জানিয়েছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।  

About

Popular Links