Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘খুন হয়েও’ আটক হলেন গৃহবধূ!

প্রেমিকের হাত ধরে পালানোর আগে দেবরের স্ত্রীকে দেওয়া মেসেজে গৃহবধূ লেখেন, ‘তুই যে হোস এই মেয়েটার আত্মীয়দের বলে দিস, আমি ওকে খালাস করে দিছি। আমায় ফালতু ছেলে বলে। ওর সব জেদ আজকে শেষ করছি। বাড়ি যাচ্ছিস তাই না? আসল বাড়ি পাঠিয়ে দিলাম। লাশটা খুঁজে নিস। টা-টা।”

আপডেট : ১৪ মে ২০২০, ০৯:৪৮ পিএম

স্বামী-সংসার থাকার পরেও তা গোপন করে অবিবাহিত ছেলের সাথে মোবাইলে প্রেম, এরপর আড়াই বছরের সংসার ত্যাগ করে প্রেমিকের সাথে পালিয়ে নতুন সংসার সাজানোর স্বপ্ন, সেই স্বপ্নকে নিষ্কন্টক করতে নিজেকে খুনের নাটক সাজান গৃহবধূ! কিন্তু পুলিশি অনুসন্ধানে বেড়িয়ে আসে প্রকৃত ঘটনা। 

বৃহস্পতিবার (১৪ মে) দুপুরে বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলীপ কুমার দাস ও পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলীপ কুমার দাস জানান, প্রায় আড়াই বছর আগে ওই গৃহবধূ বিয়ে হয়। সব ঠিকঠাক চলছিন। কিন্তু গত ৬-৭ মাস আগে গৃহবধূর সঙ্গে “ইমোর” মাধ্যমে পরিচয় হয় ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়ি উপজেলার দেবগ্রামের সানোয়ার আহম্মেদ আবিদের সাথে। পরিচয় থেকে প্রেম হলেও গৃহবধূ তার বিবাহিত হওয়ার বিষয়টি গোপন রাখে। 

গৃহবধূর স্বামী ও বাবার বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলার তারাশ থানায় হলেও স্বামীর চাকরির সূত্রে তারা পাবনার ঈশ্বরদী থাকতেন। এক পর্যায়ে গৃহবধূ তার প্রেমিকের সঙ্গে পালয়ে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। এরই ধারাবাহিকতায় ৩-৪ দিন আগে মোবাইলে ছবি তুলে “এডিট করে” খুনের নাটক সাজান গৃহবধূ!

গত ১১ মে গহবধূ বাবার বাড়িতে যাবার কথা বলে বাসা থেকে বের হয়। এদিকে আগে যোগাযোগের সূত্র ধরে প্রেমিক আবির এসে পূর্ব নির্ধারিত এলাকায় হাজির হয়।  

এ সময় পরিকল্পনা মতো গৃহবধূর মোবাইল ফোনে সংরক্ষিত সাজানো খুনের ছবি জা’এর (দেবরের স্ত্রী) মোবাইলে পাঠান তিনি। একইসঙ্গে জা’কে একটি ক্ষুদেবার্তাও পাঠান গৃহবধূ। তাতে লেখা হয়, “তুই যে হোস এই মেয়েটার আত্মীয়দের বলে দিস, আমি ওকে খালাস করে দিছি। আমায় ফালতু ছেলে বলে। ওর সব জেদ আজকে শেষ করছি। বাড়ি যাচ্ছিস তাই না? আসল বাড়ি পাঠিয়ে দিলাম। লাশটা খুঁজে নিস। টা-টা।”

মোবাইলে প্রাপ্ত মেসেজ ও ছবি নিয়ে ১২ মে বড়াইগ্রাম থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন গৃহবধূর স্বামী।  

পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, “এ ঘটনায় তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে অভিযান চালাতে থাকে পুলিশ। এরই ধারাবাহিকতায় ১৩ মে ময়মনসিংহ জেলায় জেলা থেকে ওই গৃহবধূ ও তার প্রেমিককে আটক করা হয়।”

বড়াইগ্রাম থানার ওসি (তদন্ত) সুমন বলেন, “ওই দুইজনকেই আদালতে পাঠানো হয়েছে।”

About

Popular Links