Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

টাঙ্গাইলে জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে দেশীয় গাছের মিশ্র বাগান

প্রকল্পের আওতায় ৫৩ প্রজাতির দেশীয় গাছের এক লাখ ২০ হাজার চারা রোপণ করা হবে

আপডেট : ১৮ মে ২০২০, ০৫:৪৪ পিএম

টাঙ্গাইলের মধুপুর শালবনের সমৃদ্ধির জন্য দোখলা রেঞ্জের ৮০ হেক্টর বনভূমিতে দেশি ৫৩ প্রজাতির গাছের চারা রোপণের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সুফল প্রকল্পের আওতায় শালবনের পশু পাখির নিরাপদ খাদ্য, লাল মাটির শালবনের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনা, জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ, দেশি প্রজাতি গাছের সমাহার ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য টেকসই এই মিশ্র বাগান করা হচ্ছে।  

সোমবার (১৮ মে) এ গাছের চারা রোপণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন টাঙ্গাইল বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ড. জহুরুল হক।

দোখলা রেঞ্জ সূত্রে জানা গেছে, প্রকল্পের আওতায় দোখলা রেঞ্জের ৮০ হেক্টর বনভূমিতে প্রতি হেক্টরে ১৫০০ করে মোট ১লাখ ২০ হাজার দেশি ৫৩ প্রজাতির গাছের চারা লাগানো হবে। পশু খাদ্য, জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ, বনের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনা, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য টেকসই বন ব্যবস্থাপনার আওতায় গর্জন, জাম, চাপালিশ, ঢেউওয়া, লটকন, গাব, জামরুল, জলপাই, আমড়া, বেল, তেঁতুল, আমলকি, হরতকী, বহেরা, অর্জুন, বকুল, মহুয়া, নাগেশ্বর, নিম, কাটবাদাম, কাজু বাদাম, পেয়ারা, কানাইডিঙ্গা, জয়না, নেউর, চিকরাশি, আজুলী এবং ভেষজ গাছের মধ্যে তালমূল, তেজপাতা, সোনাপাতা, নাগদানা, জইফল, রক্ত চন্দনসহ দেশি প্রজাতির গাছের চারা রোপণ করা হবে। 

এ ব্যাপারে দোখলা রেঞ্জ কর্মকর্তা আব্দুল আহাদ বলেন, “সুফল প্রজেক্টের আওতায় ষ্টেন্ড ইমপ্রুভমেন্ট শাল বন অ্যাসোসিয়েট অর্থাৎ শালবনের বিদ্যমান অবস্থা ঠিক রেখে  বনের মধ্যে লাল মাটির এ বনের পরিবেশ ও প্রকৃতির সাথে মিল রেখে দেশি ৫৩ প্রজাতির ফুল, ফল, ভেষজ ও পরিবেশ সম্মত টেকসই বাগানের লক্ষ্যে পশু খাদ্য ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য চারা রোপণ করা  হচ্ছে। এর ফলে শালবনের প্রকৃতি পরিবেশ, জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ ও এ বনের ঐতিহ্য ফিরে আসবে। বন্যপ্রাণীরা তাদের নিরাপদ খাদ্য পাবে। এ রেঞ্জে ৮০ হেক্টর বনভূমিতে প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার গাছের টেকসই মিশ্র সমৃদ্ধশীল বাগান করা হবে।”

About

Popular Links