Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

আম্ফানের প্রভাবে পঞ্চগড়ে ঝড়ো হাওয়া, বৃষ্টি

‘আম্ফানের প্রভাব হিমালয় পর্যন্ত বিস্তৃতি ঘটতে পারে এবং হিমালয়ে বাধাপ্রাপ্ত হয়ে ফিরে যাওয়ার সময় পঞ্চগড়ে ভারীবর্ষণ হতে পারে। এ সময় পঞ্চগড়ের কৃষকদের বোরো ক্ষেত ও ভুট্টাসহ বেশ কিছু ফল ও ফসলের ক্ষতি হতে পারে’

আপডেট : ২১ মে ২০২০, ০১:৫৫ এএম

শুধু উপকূল নয়, দেশের সর্বউত্তরের জেলা পঞ্চগড়েও আম্ফানের প্রভাবে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি শুরু হয়েছে। সারাদিন আকাশ মেঘাচ্ছন্ন ও থেমে থেমে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি থাকলেও রাত ১০টা থেকে টানা বৃষ্টি শুরু হয়। 

করোনাভাইরাসের কারণে এমনিতেই সন্ধ্যার পর থেকে রাস্তাঘাটে লোকজনের উপস্থিতি কমে যায়। তারপর ঝড়-বৃষ্টির কারণে সন্ধ্যা নামতেই ফাঁকা হয়ে যায় শহরের রাস্তাও। এদিকে, রাতে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি শুরু হতেই একাধিকবার লোডশেডিংয়ের মুখোমুখি হয় জেলাবাসী। 

বাংলাদেশ আবহাওয়া পূর্বাভাস কেন্দ্রের বরাত দিয়ে পঞ্চগড়ের তেতুঁলিয়া প্রথম শ্রেণি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রহিদুল ইসলাম বলেন, “ঘূর্ণিঝড় আম্ফান বাংলাদেশে আঘাত হানায় পঞ্চগড়েও এর প্রভাব পড়বে। ভারীবর্ষণের সাথে ঝড়ো হাওয়া বইবে জেলাজুড়ে।”

তিনি জানান, “বুধবার রাত তো বটেই, আগামী বৃহস্পতিবার, শুক্রবার এবং শনিবারও হাল্কাসহ ভারীবর্ষণ হতে পারে। এটা রবিবার পর্যন্তও স্থায়ী হতে পারে।”

পঞ্চগড় জেলা পরিবেশ পরিষদের সভাপতি ও পঞ্চগড় সরকারি মহিলা কলেজের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান তৌহিদুল বারী বাবু বলেন, “হিমালয়ের কাছাকাছি পঞ্চগড়ের অবস্থান এ জন্যই পঞ্চগড়ে আম্ফানের হাল্কা প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে আম্ফানের প্রভাব হিমালয় পর্যন্ত বিস্তৃতি ঘটতে পারে এবং হিমালয়ে বাধাপ্রাপ্ত হয়ে ফিরে যাওয়ার সময় পঞ্চগড়ে ভারীবর্ষণ হতে পারে। এ সময় পঞ্চগড়ের কৃষকদের বোরো ক্ষেত ও ভুট্টাসহ বেশ কিছু ফল ও ফসলের ক্ষতি হতে পারে।”

পঞ্চগড়ের জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, “জেলার পাঁচ উপজেলার কৃষি বিভাগসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের এ বিষয়ে সতর্ক থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় ফলে কোথাও ক্ষয়ক্ষতি হলে তা তাৎক্ষণিক জানানো এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরুপণের নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।”

About

Popular Links