Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নগ্ন ছবি তুলে ফাঁদ: প্রতারক চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার

গোপালগঞ্জে ব্যবসায়ীদের প্রতারণার ফাঁদে ফেলে নগ্ন ছবি তুলে মোটা অংকের টাকা আদায়ের ঘটনায় নারী সহ ৫ প্রতারক চক্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আপডেট : ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০২:০০ পিএম

শনিবার জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে পুলিশ এদের গ্রেফতার করে। এ ব্যাপারে শনিবার (০১ সেপ্টেম্বর) গোপালগঞ্জ সদর থানায়  একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো টুঙ্গিপাড়া উপজেলার নিলফা গ্রামের ফরিদ মোল্লার ছেলে কামরুল ইসলাম মোল্লা (৫০), একই গ্রামের জামাল মোল্লার ছেলে সোহাগ মোল্লা (২৮),  গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার মানকদহ গ্রামের সিরাজুল হক সিকদারের ছেলে রইচ শিকদার (৩৪), গোপালগঞ্জ শহরের নবীনবাগ এলাকার লুৎফর রহমান সিকদারের ছেলে মোঃ সাইফুল ইসলাম সিকদার (৫০) ও গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার মেরী গোপীনাথপুর গ্রামের আব্দুল আজিজের মেয়ে সায়েরা আজিজ তিথি (১৮)।

গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ ছানোয়ার হোসেন জানান, ‘প্রতারক চক্র মালামাল ক্রয় ও ট্রাক ভাড়া নেয়ার কথা বলে জেলার বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের টুঙ্গিপাড়া উপজেলার নিলফা গ্রামের ফরিদ মোল্লার ছেলে কামরুল ইসলামের বাড়িতে ডেকে নিতেন। এখানে এনেই প্রতারকদের পাতা ফাঁদে আটকে যেতেন ব্যবাসয়ীরা। এ চক্রের অন্যান্য সদস্যের সহযোগিতায়  নারী সদস্য নগ্ন হয়ে ব্যবসায়ীর সাথে ছবি তুলতেন ও ভিডিও ধারন করতেন। পরে তারা ফাকা নন জুডিশিয়াল ষ্টাম্পে সই নিয়ে মোটা অংকের অর্থ আদায় করে করত’। 

পুলিশ কর্মকর্তা জানান, ‘প্রতারণার শিকার গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বোয়ালীয়া বাজারের সিমেন্ট ব্যবসায়ী রিপন ফকির ও চন্দ্রদিঘলীয়া ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডে'র মেম্বার গাজী আনিচের অভিযোগ পেয়ে মোবাইল ফোন ট্রাকিং করে জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়’।  

তিনি আরো জানান, ‘গ্রেফতারকৃতরা প্রতারণার মাধ্যমে ১৫ থেকে ১৬ জন ব্যবসায়ীর কাছে এভাবে থেকে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার কথা স্বীকার করেছে। এ চক্রের অন্যান্য সদস্যদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ ব্যাপারে সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে’। 

প্রতারণার শিকার গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বোয়ালীয়া বাজারের সিমেন্ট ব্যবসায়ী রিপন ফকির ও চন্দ্রদিঘলীয়া ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বার গাজী আনিচ জানান, তাদের ব্যবসায়িক কাজের কথা বলে নিলফা গ্রামের  কামরুল ইসলাম মোল্লার বাড়িতে ডেকে নেয় প্রতারক চক্র। তারপর প্রতারক চক্রের সদস্যরা জোর করে নগ্ন মহিলার সাথে ছবি তোলে ও ভিডিও ধারন করে। এসব কাজ শেষে মারপিট করে তাদের কাছ থেকে নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর আদায় করে নেয়। এরপর তাদের কাছ থেকে ২ লাখ ৪০ হাজার টাকা আদায় করে এ চক্র।

About

Popular Links